২৬ জুলাই, ২০২১ ১৮:১৮

স্ত্রীকে হত্যার পর পুলিশে খবর দিতে বলেন স্বামী!

কুমিল্লা প্রতিনিধি:

স্ত্রীকে হত্যার পর পুলিশে খবর দিতে বলেন স্বামী!

স্ত্রীকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে হত্যার পর পুলিশকে খবর দিতে বলেন স্বামী জাহাঙ্গীর আলম! কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার সাদকপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম (৪৫) নামের এক আনসার সদ্যসের ঘর থেকে তার স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে বুড়িচং থানা পুলিশ। সোমবার পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে। এ ঘটনায় জাহাঙ্গীর আলমকে আটক করেছে পুলিশ। অর্থ সংকট ও দাম্পত্য কলহ নিয়ে এই ঘটনা ঘটতে পারে বলে স্থানীয়দের ধারণা। 

সূত্র জানায়, জেলার বুড়িচং উপজেলার পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের সাদকপুর উত্তর পাড়া গ্রামের আবদুল আওয়াল মাস্টারের বাড়ির আবুল হাসেমের ছেলে জাহাঙ্গীর আলমের (৪৫) সাথে উপজেলার খাড়াতাইয়া গ্রামের ছাফর আলীর মেয়ে শাহিনুর আক্তারের বিয়ে হয়। তাঁদের দু'টি ছেলে রয়েছে। বড় ছেলে রবিউল একাদশ শ্রেণিতে ও ছোট ছেলে সাবিক ৯ম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত। জাহাঙ্গীর জেলার বরুড়া উপজেলায় আনসার ব্যাটালিয়নে কর্মরত। ঈদের পরদিন বৃহস্পতিবার রাতে ছুটিতে বাড়িতে আসেন। সোমবার ভোরে চিৎকার শুনে বাড়ির লোকজন জাহাঙ্গীরের ঘরের সামনে একত্রিত হয়। এসময় দরজা ভিতর থেকে বন্ধ করে জাহাঙ্গীর থানা পুলিশকে খবর দিতে বলে। বুড়িচং থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে আসলে জাহাঙ্গীর ঘরের দরজা খুলে দেয়। 

বুড়িচং থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাকসুদ আলম জানান, ভোর ৬টায় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। পুলিশের উপস্থিতি দেখে আনসার সদস্য ঘরের দরজা খুলে দেয়। এসময় বিছানার উপর থেকে তাঁর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পাশে একটি লাঠি পড়ে ছিলো। জাহাঙ্গীর আলম প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে লাঠির আঘাতে তার স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় আনসার সদস্য জাহাঙ্গীরকে আটক ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁর দুই ছেলেকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর