শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ আগস্ট, ২০২১ ১৭:০৩
প্রিন্ট করুন printer

চান্দিনায় ভাসুরের বিরুদ্ধে বিধবা নারীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দখলের অভিযোগ

কুমিল্লা প্রতিনিধি:

চান্দিনায় ভাসুরের বিরুদ্ধে বিধবা নারীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দখলের অভিযোগ
Google News

কুমিল্লার চান্দিনায় ভাসুরের বিরুদ্ধে বিধবা নারীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দখলের অভিযোগ উঠেছে। বিধবা নারী ফারজানা রহমান চান্দিনা উপজেলার কান্দিয়ারা গ্রামের মৃত মশিউর রহমানের স্ত্রী। বর্তমানের তিনি চান্দিনা পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের স্থায়ী বসিন্দা। দোকান ছাড়তে উকিল নোটিশ পাঠালে ভাসুর মহসিন তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয় বলেও তিনি অভিযোগ করেন। 

ফারহানা রহমান জানান, চান্দিনা বাজারে নিজস্ব সম্পত্তির উপর তার স্বামীর একটি হার্ডওয়্যারের দোকান রয়েছে। দোকানটির পুঁজি ছিল ব্যাংক লোনের উপর। ব্যাংক লোনের লাখ লাখ টাকা অপরিশোধিত রেখে মশিউর রহমান গত বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর মারা যান। তাদের মোহাম্মদ আবদুল্লাহ (৮) নামের এক সন্তান রয়েছে। 

দোকানের ব্যাংক লোন পরিশোধ এবং পরিবারের খরচ বাবদ মাসে ২০ হাজার টাকা দেওয়ার কথা বলে দোকানটি দখলে নেন ভাসুর মহসিন সরকার। দোকানটি দখলে নেওয়ার পর থেকে ব্যাংক লোনের কোন টাকা তিনি পরিশোধ করেননি। ব্যাংক পর পর তিনমাস টাকা পরিশোধের নোটিশ দিয়ে পরবর্তীতে তার স্বামীর ব্যাংক ডিপোজিট থেকে ৭ লাখ টাকা নিয়ে নেয়। এমন পরিস্থিতিতে তিনি দোকান ফিরিয়ে নিতে উকিল নোটিশ করলে ভাসুর মহসিন তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এছাড়া গত ২৭ জুলাই রাতে তার শিশু ছেলে এবং তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে দরজায় তালা লাগিয়ে দেয়। সিসিটিভিতে দেখে পুলিশকে জানানো হলে তারা ঘটনাস্থলে আসে। 

মশিউর রহমানের মামা মনিরুজ্জামান জানান, এটি পারিবারিক বিরোধ। একাধিকবার বসে সমাধানের চেষ্টা করেছেন তারা। মহসিন সরকার দোকান ছাড়তে রাজি হচ্ছে না। যার কারণে সামধানের পথ বন্ধ রয়েছে।

অভিযুক্ত মহসিন সরকার বলেন, এটা আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। তার বন্টননামা রয়েছে। ফারজানা রহমানের অভিযোগ সঠিক নয় বলেও তিনি দাবি করেন।

চান্দিনা থানার ওসি সামসউদ্দিন মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নিয়ে দুই পরিবারের বিরোধের বিষয়টি জেনেছি। বিধবা নারীর দরজায় তালা লাগানোরও অভিযোগ পেয়েছি। সম্পত্তির বিরোধ মীমাংসার সুযোগ আমাদের নেই। এলাকাবাসী সমস্যাটি সমাধানের জন্য বসলে আমরাও সহযোগিতা করবো।     

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 

এই বিভাগের আরও খবর