Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৩ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১৪

না যাওয়ার সিদ্ধান্ত সঠিক

নিজস্ব প্রতিবেদক

না যাওয়ার সিদ্ধান্ত সঠিক

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেছেন, আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনে বিএনপির না যাওয়ার সিদ্ধান্ত সঠিক। কারণ দেশে কোনো গণতান্ত্রিক পরিবেশ নেই। বিএনপি নেতা-কর্মীদের খুন-গুম করা হচ্ছে। মিথ্যা অভিযোগে মামলা দেওয়া হচ্ছে। নির্যাতন করা হচ্ছে। এ রকম একটি পরিবেশে কেউ আওয়ামী লীগের সম্মেলনে যেতে পারে না। গতকাল দুপুরে রাজধানীর  নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ মন্তব্য করেন। টানা দুই মাস কারাভোগের পর ১৯ অক্টোবর কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ থেকে জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর গতকালই প্রথম দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আসেন বিএনপির এই নেতা। শনিবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের দুই দিনব্যাপী ২০তম জাতীয় এই সম্মেলন শুরু হয়। সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দলের নেতা অতিথি হিসেবে যোগ দেন। আমন্ত্রণ পাওয়া সত্ত্বেও বিএনপির কোনো প্রতিনিধি এ সম্মেলনে যায়নি। সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল সূত্রগুলো জানিয়েছে, তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল নির্ধারণ করা হলেও শেষ মুহূর্তে সম্মেলনে যাওয়ার ব্যাপারে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অনুমতি মেলেনি। রিজভী আহমেদ বলেন, কয়েক দিন আগেও বিএনপি চেয়ারপারসনকে আক্রমণ করে কথা বলেছেন আওয়ামী লীগ নেতারা। এ ছাড়া এর আগে অনুষ্ঠিত বিএনপির সম্মেলনে আওয়ামী লীগ আসেনি। উপরন্তু তারা বিএনপির সম্মেলন অনুষ্ঠানে বাধা দিয়েছে। দলের এই সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব ক্ষমতাসীন দলের সমালোচনা করে বলেন, এ সরকার দেশের সর্বক্ষেত্রে লেলিহান কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে। যারা আজ দেশ শাসন করছেন, তারা জনগণের প্রতিনিধি নন। তারা সবাই নিজেদের জমিদার মনে করেন। আওয়ামী লীগের সম্মেলন সম্পর্কে তিনি বলেন, তারা এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে গোটা রাজধানী দখল করে কাউন্সিল করছে। তারা লাল-নীল ঝাড়বাতি লাগিয়ে ঢাকাকে একাকার করে ফেলেছে। একটা রাজনৈতিক দলের সম্মেলন এভাবে হতে পারে না। অথচ বিএনপির কাউন্সিলে এ সরকার বিভিন্নভাবে বাধা দিয়েছে। পথে পথে নেতা-কর্মীদের আসতে বাধা দিয়েছে। কাউন্সিলের অনুমতি দিয়েছে একদিন আগে। যেন সবার মনে একটা সন্দেহ জাগে বিএনপি কাউন্সিল করতে পারবে কিনা। আমাদের ব্যানার-পোস্টার পর্যন্তও লাগাতে দেয়নি। ঠিকমতো মাইক পর্যন্তও লাগাতে দেওয়া হয়নি। সংবাদ সম্মেলনে নাগরিক ঐক্য নেতা মাহমুদুর রহমান মান্না, গাজীপুরের মেয়র অধ্যাপক এম এ মান্নান ও বিএনপি নেতা হাবিব-উন নবী খান সোহেলের নামে মিথ্যা অভিযোগে দায়ের সব মামলা প্রত্যাহারসহ তাদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন রিজভী আহমেদ।


আপনার মন্তব্য