শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ জুলাই, ২০২০ ০০:১০

এক দিনে রেকর্ড ৬৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৬৮২

বিশেষ প্রতিনিধি

এক দিনে রেকর্ড ৬৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৬৮২

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৬৪ জন মারা গেছেন। এ যাবৎকালে এক দিনে এটিই সর্বাধিক মৃত্যুর ঘটনা। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল এক হাজার ৮৪৭ জনে। এর আগে ১৬ জুন এক দিনে মোট ৫৩ জনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদফতরের বুলেটিনে, এতদিন সেটাই ছিল এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে তিন হাজার ৬৮২ জনের শরীরে। দেশে এখন পর্যন্ত সব মিলিয়ে করোনা শনাক্ত হয়েছেন এক লাখ ৪৫ হাজার ৪৮৩ জন। আইইডিসিআরের অনুমিত হিসাবে গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি রোগী ও বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নেওয়া রোগীদের মধ্যে আরও এক হাজার ৮৪৪ জন সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৯ হাজার ৬২৪ জনে।

গতকাল করোনাভাইরাস সম্পর্কিত সবশেষ তথ্য জানাতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে এসব তথ্য জানান অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা। তিনি বলেন, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ৫২ জন পুরুষ এবং ১২ জন নারী। বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ১১ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১৬ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ছয়জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ২১ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে সাতজন রয়েছেন। তাদের ৩১ জন ঢাকা বিভাগের, ১২ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, সাতজন করে রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের, তিনজন বরিশাল বিভাগের এবং দুজন করে ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন। তাদের মধ্যে হাসপাতালে ৫১ জন এবং বাসায় ১৩ জন মারা গেছেন। নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৮টি ল্যাবের জন্য ১৮ হাজার ৮৬৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। কিন্তু ৬৬টি ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়েছে ১৮ হাজার ৪২৬টি নমুনা। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত সাত লাখ ৬৬ হাজার ৪০৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪০ দশমিক ৯৮ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার এক দশমিক ২৭ শতাংশ। সারা দেশের কোথায় কোথায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী মৃত্যুবরণ করেছেন এবং নতুন রোগী শনাক্ত হলেন এবং তার সবশেষ খবর জানিয়েছেন আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিরা। দিনাজপুর : জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় একই পরিবারের চারজনসহ ১৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৬০১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৪২৭ জন, নারী ১৪৬ জন ও শিশু ২৮ জন রয়েছে। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও আটজনসহ মোট সুস্থ হয়েছেন ৩১৯ জন। এ পর্যন্ত জেলায় মৃত্যুবরণ করেছেন ১২ জন। এ তথ্য জানিয়েছেন, দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. আবদুল কুদ্দুছ। তিনি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর মধ্যে দিনাজপুর সদরে একজন, ফুলবাড়ীতে একজন, বিরামপুরে দুজন, বোচাগঞ্জে দুজন, বীরগঞ্জে একজন, ঘোড়াঘাটে দুজন ও চিরিরবন্দরে একই পরিবারের চারজন রয়েছেন।

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামে এক দিনে নতুন করে আরও ৪৪৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল আট হাজার ৪৭২ জনে। নতুন শনাক্ত ৪৪৫ জনের মধ্যে নগরীর বাসিন্দা ৩২৪ জন এবং বিভিন্ন উপজেলার ১২১ জন। এর মধ্যে মিরসরাই উপজেলায় সবচেয়ে বেশি ২৬ জন শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও দুজন, সে হিসাবে এ পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ১৭৩ জন। শেষ ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫৯ জন।

সরকারি হিসেবে এখন পর্যন্ত সুস্থ হলেন ১০২৪ জন।

রাজশাহী : রাজশাহীতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। গতকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আসাদুল ইসলাম খোকন (৬০) মারা যান। তিনি নগরীর হোসনীগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। পারিবারিক সূত্র জানায়, খোকন করোনাভাইরাস পজিটিভ ছিলেন। সোমবার বিকালে শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনাভাইরাস ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। শেরপুর : জেলায় নতুন করে এক পুলিশ সদস্যসহ ৯ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। সোমবার রাতে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে ১৪৫টি নমুনা পরীক্ষা শেষে ওই ৯ জনের করোনাভাইরাস পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এ নিয়ে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২৪৪ জনে। আক্রান্তদের মধ্যে শেরপুর সদর উপজেলায় তিনজন, নালিতাবাড়ী উপজেলায় এক পুলিশ সদস্যসহ তিনজন, শ্রীবরদী উপজেলায় দুজন এবং নকলা উপজেলায় একজন রয়েছেন।

চাঁদপুর : জেলার পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুর রহমানের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। জেলার সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানায়, রবিবার তার নমুনা সংগ্রহ করে টেস্টের জন্য পাঠানো হয়েছিল। গতকাল হাতে পাওয়া ওই রিপোর্টে পজিটিভ উল্লেখ করা হয়। চাঁদপুরে এ পর্যন্ত ৮৫৬ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে অর্ধশতাধিক পুলিশ সদস্য রয়েছেন। আর জেলায় মোট মারা গেছেন ৫৭ জন। সিলেট : সিলেট বিভাগে নতুন করে ১৬৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় তাদের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। আক্রান্ত ব্যক্তিরা সিলেট, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজার জেলার বাসিন্দা। এ নিয়ে বিভাগে করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চার হাজার ৪৬২। বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় দুজন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এ সময়ে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৬২ জন। নরসিংদী : জেলায় ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। অন্যদিকে উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া দুই ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট করোনা পজিটিভ এসেছে। মারা যাওয়া ব্যক্তিরা হলেন নরসিংদী শহরের ব্রাহ্মন্দী এলাকার বিনয় দাস (৮০) ও একই এলাকার মঞ্জু সাহা (৬০), রায়পুরা পৌর এলাকার ফরিদ মিয়া (৪০) এবং পলাশ উপজেলার চরসিন্দুর এলাকার হুমায়ূন কবির (৭২)। বিনয় দাস ও হুমায়ূন কবির করোনা পজিটিভ হিসেবে মারা গেছেন। অন্যদিকে মঞ্জু সাহা ও ফরিদ মিয়া উপসর্গ নিয়ে মারা যান। নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে তারা করোনা পজিটিভ হয়েছেন। ফেনী : জেলায় নতুন করে আরও ১১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৮৩৮ জনে। এর মধ্যে ৪৬১ জন ইতিমধ্যে সুস্থ হয়েছেন। আর মারা গেছেন ১৭ জন। নতুন আক্রান্ত ১১ জনের মধ্যে ফেনী সদর উপজেলায় রয়েছেন চারজন, সোনাগাজী উপজেলায় ছয়জন ও ফুলগাজী উপজেলায় একজন রয়েছেন।

নোয়াখালী : জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় পাঁচ পুলিশ সদস্যসহ নতুন করে আরও ৪৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। গতকাল জেলা সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে নতুন সংক্রমণের এই তথ্য প্রকাশ করা হয়। এ নিয়ে জেলায় করোনায় সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৯২।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর