শিরোনাম
প্রকাশ : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৩:১২
প্রিন্ট করুন printer

যুদ্ধের হুমকির পরও চীনকে নতুন চান্দ্রবর্ষের শুভেচ্ছা তাইওয়ানের

অনলাইন ডেস্ক

যুদ্ধের হুমকির পরও চীনকে নতুন চান্দ্রবর্ষের শুভেচ্ছা তাইওয়ানের
চীন ও তাইওয়ানের রাষ্ট্রপ্রধান

তাইওয়ান অঞ্চলে সম্প্রতি সামরিক উপস্থিতি বাড়িয়েছে চীন। এ নিয়ে অনেক উত্তপ্ত বাক্যও বিনিময় হয়েছে চীন ও তাইওয়ানের মধ্যে। নিজেদের স্বাধীন দেশ হিসেবে দাবি করে তাইওয়ান। আর তাইওয়ানকে নিজেদের অংশ বলে দাবি করে চীন। গত সপ্তাহেও তাইওয়ানকে হুশিয়ার করে দিয়ে চীন বলেছে, স্বাধীনতা মানেই যুদ্ধ। এমন উত্তপ্ত পরিস্থিতির মধ্যেও চীনকে নতুন চান্দ্রবর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং ওয়েন। স্থানীয় সময় গতকাল মঙ্গলবার তিনি এই শুভেচ্ছা জানান। 

তাইওয়ান ফের স্বাধীন দেশ দাবি করে সাই ইং ওয়েন বলেন, নতুন চান্দ্রবর্ষ তাইওয়ান ও চীন এ সপ্তাহে আলাদাভাবে উদ্‌যাপন করবে। নতুন চান্দ্রবর্ষ দুই দেশের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা চীনের জনগণকে চান্দ্রবর্ষের শুভেচ্ছা জানাতে চাই। দুই পক্ষের শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষা করতে চাই।

সাই ইং ওয়েন জানিয়ে দেন, তিনি চীনের কোনো চাপের মুখে নতিস্বীকার করবেন না। বেইজিংয়ের সঙ্গে আবার আলোচনা শুরুর জন্য আহ্বান জানান তিনি। সাই ইং ওয়েন বলেন, ‘আমি বলতে চাই, তাইওয়ানের অবস্থান একই থাকবে। কোনো চাপের কাছে তাইওয়ান নতিস্বীকার করবে না। তাইওয়ান চীনের সঙ্গে পারস্পরিক সমঝোতার ভিত্তিতে ফলপ্রসূ আলোচনা চায়। চীনের হাতেই মূল সমাধান রয়েছে। মৌখিক আক্রমণ ও সামরিক হুমকিতে তাইওয়ানের অবস্থান বদলাবে না। অতীতেও তা হয়নি।’

চীনের তাইওয়ান অ্যাফেয়ার্স অফিস সাই ইং ওয়েনের বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা বলেছে, তাইওয়ানের সরকার ঘটনাগুলো বিকৃত করছে। স্বাধীনতা অর্জনের জন্য বিদেশি শক্তির সঙ্গে হাত মেলাচ্ছে। তাইওয়ানের ক্ষমতাসীন দল ডেমোক্রেটিক প্রগ্রেসিভ পার্টি দেশটিতে এ অবস্থা সৃষ্টি করেছে।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর