শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:১৮

মধ্যবর্তী নির্বাচনে ট্রাম্পের কপালে ভাঁজ

৬ নভেম্বর মধ্যবর্তী নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটরা জয়লাভ করবে বলে বিভিন্ন জরিপে বলা হচ্ছে

মধ্যবর্তী নির্বাচনে ট্রাম্পের কপালে ভাঁজ

মাসদুয়েক পরই যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের মধ্যবর্তী নির্বাচন। তবে এবারের নির্বাচনকে অন্যান্যবারের তুলনায় বেশ গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। এখন দ্বিকক্ষবিশিষ্ট কংগ্রেসের উভয় কক্ষের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে ক্ষমতাসীন দল রিপাবলিকান পার্টি। তবে মধ্যবর্তী নির্বাচনে সেই চিত্র পাল্টে যেতে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। বিশেষ করে বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কার্যকলাপ এই নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের ওপর প্রভাব ফেলছে। আর এই সুযোগটিকে কাজে লাগাতে চায় ডেমোক্র্যাটরা। আর সে জন্য প্রচারণার মাঠে নেমে পড়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে ইতিহাস সৃষ্টিকারী সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। ওদিকে এ নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটরা তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী রিপাবলিকানদের থেকে বেশ এগিয়ে আছে জনমত জরিপে। যুক্তরাষ্ট্রের মধ্য-পশ্চিম রাজ্যগুলোতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের জনপ্রিয়তা কমে গেছে অনেক। বিশেষ করে মিসিগান, উইসকনসিন ও মিনেসোটার মতো রিপাবলিকানদের গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যগুলোতে ট্রাম্পের সমর্থন অনেকটাই কমে গেছে। লন্ডনের অনলাইন দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মধ্যবর্তী নির্বাচন নিয়ে সর্বশেষ জনমত জরিপ করেছে মেরিস্ট ইনস্টিটিউট ফর পাবলিক অপিনিয়ন। তাতে দেখা গেছে, রিপাবলিকানদের থেকে ডেমোক্র্যাটরা এগিয়ে আছে শতকরা ১২ পয়েন্টে। ওই সংস্থার পরিচালক লি মিরিঙ্গয়ফ বলেন, যেভাবেই আমরা প্রাপ্ত ডাটা পর্যবেক্ষণ করি না কেন, একই প্যাটার্ন বেরিয়ে আসে। ওদিকে বুধবার আলাদা একটি  জরিপ প্রকাশ করেছে কুইনিপিয়াক ইউনিভার্সিটি। তাতে, শতকরা ১৪ পয়েন্টে এগিয়ে আছে ডেমোক্র্যাটরা।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস দ্বিকক্ষবিশিষ্ট। একটি হলো প্রতিনিধি পরিষদ। অন্যটি সিনেট। এর মধ্যে প্রতিনিধি পরিষদের নিয়ন্ত্রণ নিতে ডেমোক্র্যাটদের প্রয়োজন হবে ২৩টি আসন। আগামী ৬ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় মধ্যবর্তী নির্বাচনে যদি তারা এই সংখ্যক আসন পায় তাহলে প্রতিনিধি পরিষদ চলে আসবে তাদের হাতে।


আপনার মন্তব্য