Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২০ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ জানুয়ারি, ২০১৯ ২৩:০৭

লোকারণ্য বাণিজ্য মেলায় কেনাকাটার ধুম

নিজস্ব প্রতিবেদক

লোকারণ্য বাণিজ্য মেলায় কেনাকাটার ধুম

লক্ষাধিক ক্রেতা-দর্শনার্থীর আগমনে গতকাল লোকে লোকারণ্যে পরিণত হয়েছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা বা ডিআইটিএফ-২০১৯। গতকাল সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় দিনভর সব শ্রেণি-পেশার দর্শনার্থী আসেন মেলায়। ক্রেতা-দর্শনার্থীদের স্রোতে তিল ধারণের ঠাঁই ছিল না রাজধানীর শেরেবাংলা নগর প্রাঙ্গণের এই বাণিজ্য মেলায়। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো-ইপিবি যৌথভাবে আয়োজিত এবারের ডিআইটিএফ চলবে আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মেলা সব ক্রেতা-দর্শনার্থীর জন্য উন্মুক্ত। মেলায় প্রবেশের জন্য প্রাপ্ত বয়স্কদের ৩০ টাকা ও অপ্রাপ্ত বয়স্কদের ২০ টাকা মূল্যের টিকিট কিনতে হবে। এবার টিকিট অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে। সরেজমিন মেলা প্রাঙ্গণে দেখা যায়, দর্শনার্থীরা স্টল আর প্যাভিলিয়নগুলোতে কেনাকাটায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। দর্শক সমাগম বাড়ায় স্টল মালিক-কর্মচারীরা পার করছেন ব্যস্ত সময়। দম ফেলার সময় পাচ্ছেন না তারা। তবে বিক্রি বেশি হওয়ায় আছে মানসিক স্বস্তি। ব্যবসায়ীরা জানান, এবারের মেলায় গতকালই তাদের সর্বোচ্চ বিক্রি হয়েছে। মেলায় বিক্রির শীর্ষে আছে প্লাস্টিক পণ্য। বাংলাদেশি কয়েকটি প্লাস্টিক কোম্পানি নগদ মূল্যছাড় দেওয়ায় এসব প্যাভিলিয়নে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। এছাড়া ঘর সাজানোর জিনিসপত্র, রান্নার সরঞ্জাম ও গার্মেন্ট পণ্যের স্টলগুলোতে ক্রেতা সমাগম বেশি। খাবার হোটেলগুলোতেও রয়েছে চোখে পড়ার মতো ভিড়। তবে বিদেশি প্যাভিলিয়নগুলোর দিকেই দর্শনার্থীদের আকর্ষণ সবচেয়ে বেশি। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন রাইড যোগ হওয়ায় শিশুকেন্দ্রগুলোতেও রয়েছে যথেষ্ঠ ভিড়। অন্যদিকে, বাণিজ্য মেলায় ভিড় বাড়ার ফলে মেলার আশপাশের এলাকাগুলোতে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র যানজট। মিরপুরগামী যাত্রীরা পড়েছেন ভোগান্তির মধ্যে। টিকিট বিক্রেতারা জানান, এ বছর বাণিজ্য মেলা শুরুর পর থেকে গতকাল সবচেয়ে বেশি টিকিট বিক্রি হয়েছে।

সাধারণত মেলার শেষের দিনগুলোতে টিকিট বিক্রি বেশি হয়। শেষের দিকে ছুটির দিনগুলোতে টিকিট বিক্রি হয় সবচেয়ে বেশি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর