প্রকাশ : শুক্রবার, ১৫ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ মার্চ, ২০১৯ ২২:২৯

ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সমাবেশে বাংলাদেশ স্বাধীন ঘোষণা

তানিয়া তুষ্টি

ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সমাবেশে বাংলাদেশ স্বাধীন ঘোষণা

সামরিক বাহিনীর নয়াবিধি জারির প্রতিবাদে স্বাধীন বাংলা কেন্দ্রীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ একাত্তরের এদিন সমাবেশ ডাকে এই সমাবেশে ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের নেতারা ঘোষণা করেন, ‘বাংলাদেশ এখন স্বাধীন’। প্রেসিডেন্ট জেনারেল ইয়াহিয়া খানের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় রাজনৈতিক পরিস্থিতি। এই অবস্থাতেই বাঙালি জাতির অবিসংবাদী নেতা বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে আলোচনার জন্য এদিন ঢাকায় এলেন  প্রেসিডেন্ট জেনারেল ইয়াহিয়া খান। বঙ্গবন্ধুর ডাকা অসহযোগ আন্দোলনের ১৫তম দিনে এসে আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পূর্ব পাকিস্তান। এই দিনে ঢাকাসহ পূর্ব পাকিস্তানের বিভিন্ন শহরে সভা, সমাবেশ, মিছিল করা হয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সব অফিস-আদালতে চলে কর্মবিরতি। সরকারি ও বেসরকারি অফিস, ঘরবাড়ি এমনকি যানবাহনে ওড়ানো হয় কালো পতাকা। প্রতিপক্ষের আঘাতের জবাব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হতে থাকে স্বাধীন বাংলা কেন্দ্রীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ। এদিন ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় চেকপোস্ট বসিয়ে পাকিস্তানি সৈন্যদের নজরদারি বন্ধের দাবি জানান বঙ্গবন্ধু। এর ফলে বাঙালিদের নিয়ন্ত্রণে রাখার সব চেষ্টাও ব্যর্থ হয় ইয়াহিয়া খান সরকারের। এমন এক উত্তাল দিনে কঠোর সামরিক নিরাপত্তায় এলেন প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খান। বঙ্গবন্ধুও স্বাধীনতার দাবিতে অটল থেকেই দেখা করতে যান ইয়াহিয়া খানের সঙ্গে।


আপনার মন্তব্য