শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১২ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ জুলাই, ২০১৯ ০০:১৭

ডিসি সম্মেলন এবার পাঁচ দিন, উঠছে ৩৩৩ প্রস্তাব

শুরু হচ্ছে রবিবার

নিজস্ব প্রতিবেদক

ডিসি সম্মেলন এবার পাঁচ দিন, উঠছে ৩৩৩ প্রস্তাব

আগামী রবিবার শুরু হচ্ছে পাঁচ দিনের জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলন। সম্মেলনে ২৪টি কার্য-অধিবেশনে ৩৩৩টি প্রস্তাবের ওপর আলোচনা হবে। ডিসি সম্মেলন তিন দিনের পরিবর্তে এই প্রথম পাঁচ দিন হচ্ছে। সম্মেলনে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে প্রধান বিচারপতি ও জাতীয় সংসদের স্পিকারের সঙ্গে ডিসিদের সৌজন্য সাক্ষাৎ; যা একেবারেই নতুন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম গতকাল বিকালে সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য দেন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রবিবার সকাল ৯টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে এবারের ডিসি সম্মেলন উদ্বোধন করবেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে হবে মুক্ত আলোচনা। যেখানে বিভাগীয় কমিশনার ও ডিসিরা অংশ নেবেন। এরপর ওই দিন বিকাল থেকেই সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদের সভাকক্ষে চলবে বিভিন্ন অধিবেশন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এবারের সম্মেলনে মোট ২৯টি কার্য-অধিবেশন। এর মধ্যে ২৪টি কার্য-অধিবেশন হচ্ছে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সঙ্গে। যেখানে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, উপদেষ্টা, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী, সিনিয়র সচিব ও সচিবরা ডিসিদের কথা শুনবেন এবং দিকনির্দেশনা দেবেন। এসব অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ ৫৪টি মন্ত্রণালয়-বিভাগ অংশ নেবে।

সম্মেলনে আলোচনার জন্য ডিসি ও বিভাগীয় কমিশনারদের কাছ থেকে ৩৩৩টি প্রস্তাব পাওয়া গেছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২৯টি প্রস্তাব হচ্ছে স্থানীয় সরকার বিভাগসংক্রান্ত। মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, প্রতি বছরের মতো এবারও ডিসি সম্মেলনে দেশের ৬৪ জেলার ডিসিদের সঙ্গে সরাসরি মতবিনিময় করে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দেবেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের নীতিনির্ধারকরা। তবে এবার নতুন করে প্রধান বিচারপতি, জাতীয় সংসদের স্পিকার এবং তিন বাহিনীর প্রধানদের সঙ্গেও ডিসিদের বৈঠক হবে। এজন্য এবার ডিসি সম্মেলনের সময় দুই দিন বাড়ানো হয়েছে।

১৪ জুলাই সম্মেলন উদ্বোধনের পরদিন ১৫ জুলাই সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে ডিসিদের দিকনির্দেশনা দেবেন রাষ্ট্রপতি। ১৬ জুলাই বিকালে সুপ্রিম কোর্ট জাজেস লাউঞ্জে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন ডিসিরা। ১৮ জুলাই বিকালে জাতীয় সংসদ ভবনের ক্যাবিনেট কক্ষে স্পিকারের অনুপস্থিতিতে ডেপুটি স্পিকারের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন ডিসিরা। ১৭ জুলাই সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে কার্য-অধিবেধন হবে। ১৮ জুলাই বুধবার দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে হবে ডিসি সম্মেলনের সমাপনী অধিবেশন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, গত বছর ডিসি সম্মেলনে নেওয়া সিদ্ধান্তগুলোর মধ্যে ৯২ দশমিক ৯০ শতাংশ বাস্তবায়িত হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর