শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:৪৩

পোশাকশ্রমিকদের বিক্ষোভ অবরোধ জনদুর্ভোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক

পোশাকশ্রমিকদের বিক্ষোভ অবরোধ জনদুর্ভোগ
সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে পোশাকশ্রমিকরা - বাংলাদেশ প্রতিদিন

রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চলে বেতনসহ বিভিন্ন সুবিধা পরিশোধ না করে ছাঁটাইয়ের অভিযোগে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন গার্মেন্ট শ্রমিকরা। শ্রমিক বিক্ষোভে সচল রাস্তা নিমেষেই অচল হয়ে পড়ে। বিপাকে পড়ে ওই রাস্তায় চলাচলকারী হাজারো মানুষ। তাদের রাস্তা থেকে সরিয়ে দিতে চেষ্টা করে পুলিশ। এতে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষ বাধে। পরে মীমাংসা হলে শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নেন। প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা অবরোধ থাকার পর সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হতে শুরু করে।

গতকাল সকাল ৯টার দিকে বকেয়া বেতনের দাবিতে তেজগাঁওয়ের রাস্তা অবরোধ করেন নাসা মেইনল্যান্ড নামে একটি গার্মেন্টের শ্রমিকরা। এতে মগবাজার-মহাখালী সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সৃষ্টি হয় তীব্র যানজট। এরপর গার্মেন্ট শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনায় বসে মালিকপক্ষ। মালিকপক্ষের আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে বেলা সাড়ে ১২টায় গার্মেন্ট শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নেন। জানা গেছে, গত বুধবার সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত নাসা গ্রুপের গার্মেন্টের সামনে কয়েকশ শ্রমিক অবস্থান নেন। পরে পুলিশ তাদের বুঝিয়ে সেখান থেকে সরিয়ে দেয়। গতকাল ভোর থেকে আবারও তারা সড়কে অবস্থান নেন। এতে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হলে ওই এলাকায় অচলাবস্থা নেমে আসে। পুলিশ তাদের লাঠিচার্জ করে সরিয়ে দেয়। নাসা মেইনল্যান্ড গার্মেন্টের শ্রমিকরা বলেছেন, বেতনসহ অন্যান্য আর্থিক সুবিধা পরিশোধ না করেই গার্মেন্ট কর্তৃপক্ষ আমাদের ছাঁটাই করছে। অনেকে ছাঁটাইয়ের পর গার্মেন্ট থেকে বের না হতে চাইলে তাদের মারধর করা হয়। এ নিয়ে আমরা শ্রমিকরা এক হয়ে প্রতিবাদ করি। এতে গার্মেন্ট কর্তৃপক্ষের লোকজন আমাদের ওপর চড়াও হয়। তারা আমাদের পাওনা দিতে অস্বীকার করে। এ কারণে আমরা সড়কে নেমে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করি। কিন্তু পুলিশও আমাদের ওপর চড়াও হয়। সরেজমিন দেখা গেছে, নাসা মেইনল্যান্ডের গার্মেন্ট শ্রমিকরা তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল ও সাতরাস্তা মোড়ে অবস্থান নেওয়ার কারণে এক পাশে মগবাজার ও অপরদিকে মহাখালীর সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। অফিস ও স্কুলগামীরা বিপাকে পড়েন। অনেককে পায়ে হেঁটে গন্তব্যে যেতে হয়েছে। অফিসগামীদেরও গাড়ি থেকে নেমে পায়ে হেঁটে অফিসে যেতে দেখা গেছে। তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন বলেন, বুধবার রাত ১১টার পর শ্রমিকরা গার্মেন্টের আশপাশে অবস্থান নেন। উত্তেজিত শ্রমিকরা গার্মেন্টে ভাঙচুর করতে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। গত দুই দিন শ্রমিক ছাঁটাই নিয়ে তাদের এই অসন্তোষ চলছিল। গতকাল সকাল থেকে তারা আবারও সড়কে নামে। পরে গার্মেন্ট শ্রমিকদের সঙ্গে মালিকপক্ষের আলোচনা হয়। মালিকপক্ষ শ্রমিকদের দাবি-দাওয়া মেনে নিলে দুপুরে তারা সড়ক থেকে অবরোধ তুলে নেন। এরপর মহাখালী-মগবাজার সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হতে শুরু করে। শ্রমিকরা জানিয়েছেন, গার্মেন্টে নিয়মবহির্ভূত শ্রমিক ছাঁটাই ও নির্যাতনের প্রতিবাদে তাদের এ অবস্থান।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর