শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:৪৮

নগদ সহায়তা বাড়াতে হবে : সিদ্দিকুর রহমান

নগদ সহায়তা বাড়াতে হবে : সিদ্দিকুর রহমান

পোশাকশিল্পের চলমান সংকট উত্তরণে সরকারের আরও বেশি নগদ সহায়তা বাড়াতে হবে বলে মনে করেন বিজিএমইএ সাবেক সভাপতি ও এফবিসিসিআইর সহসভাপতি সিদ্দিকুর রহমান। তিনি বলেছেন, প্রতিদিন পোশাক কারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। আমাদের বাজার হাত ছাড়া হয়ে যাচ্ছে। সংকট উত্তোরণে সরকার, মালিক ও সংশ্লিষ্টদের উদ্যোগ জরুরি। কারণ  পোশাকশিল্পের বাজার একবার চলে গেলে আর আসবে না। গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতি-বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান। তিনি আরও বলেন, দেশের পোশাক শিল্পে গত চার মাসে রপ্তানি প্রবৃদ্ধি কমে গেছে। এই সময়ে প্রতি মাসেই রপ্তানি প্রবৃদ্ধি নেতিবাচক হয়েছে। এখন মূল বিষয় হলো- পোশাক পণ্যের গবেষণা ও মান উন্নয়ন বাড়াতে হবে। ক্রেতাদের কাছে নতুন ডিজাইনের পোশাক নিয়ে আমাদের হাজির হতে হবে। নিজেদের বাজার শক্তিশালী করতে হবে। এর সঙ্গে এই শিল্পের সক্ষমতাও বাড়াতে হবে। তিনি বলেন, আমাদের বন্দরগুলোতে পণ্য খালাসে যেমন সময় বেশি লাগছে, তেমনি পণ্য রপ্তানিতেও বাড়তি সময় আমাদের অর্থনৈতিক ক্ষতি বাড়িয়ে দিচ্ছে। এক্ষেত্রে প্রতিযোগিতাময় বিশ্ববাজারের কথা মনে রেখে সময়ক্ষেপণ কমাতে হবে। সিদ্দিকুর রহমান বলেন, বিশ্ব বাজারে বাংলাদেশি পোশাক পণ্যের চাহিদা কমেছে। আবার ইরোপের দেশগুলোর অর্থনৈতিক মন্দাবস্থা প্রকট হচ্ছে। আমাদের প্রতিযোগী দেশগুলোর সঙ্গে বৈদেশিক মুদ্রার অবমূল্যায়ন হওয়ার কারণে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়ছেন বাংলাদেশি উদ্যোক্তারা। সব মিলিয়ে দেশের রপ্তানি অর্থনীতির প্রাণ পোশাকশিল্প বাঁচাতে নিজেদের সক্ষমতাও বাড়াতে হবে বলে মনে করেন এই ব্যবসায়ী নেতা।


আপনার মন্তব্য