শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৪ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ জানুয়ারি, ২০২০ ২৩:১৪

চেনা-অচেনা সবজির সমাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক

চেনা-অচেনা সবজির সমাহার
খামারবাড়ির কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে গতকাল থেকে শুরু হয়েছে জাতীয় সবজি মেলা - বাংলাদেশ প্রতিদিন

কোথাও রাখা বিশালাকৃতির মিষ্টিকুমড়া, কোথাও শীতকালীন সবজি দিয়ে সাজানো হয়েছে ঘর, কোথাও আবার বাংলাদেশের ম্যাপ তৈরি করা হয়েছে নানা জাতের সবজি দিয়ে। শত শত প্রজাতির সবজি। অনেকটাই চেনা, অনেক সবজি আবার নগরবাসীর কাছে একেবারেই নতুন। আর তাই নিজ দেশে উৎপাদিত নানা প্রজাতির সবজির সঙ্গে নিজে পরিচিত হওয়ার পাশাপাশি ভবিষ্যৎ প্রজন্মের পরিচয় ঘটতে গতকাল অনেকেই সন্তানের হাত ধরে ছুটে যান খামারবাড়িতে। রাজধানীর খামারবাড়ি কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন চত্বরে শুরু হওয়া জাতীয় সবজি মেলায় দেড় শতাধিক দেশি সবজি নিয়ে হাজির হয়েছে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

গতকাল বিকালে তিন দিনব্যাপী এ সবজি মেলার উদ্বোধন করেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আবদুর রাজ্জাক। ‘পুষ্টি ও সুস্বাস্থ্যের জন্য নিরাপদ সবজি’ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে পঞ্চমবারের মতো এ মেলার আয়োজন করেছে কৃষি মন্ত্রণালয়। বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি  প্রতিষ্ঠান ৬৫টি স্টল ও ৩টি প্যাভিলিয়নে দেড় শতাধিক ধরনের সবজি নিয়ে অংশগ্রহণ করেছে মেলায়। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা সবার জন্য উন্মুক্ত। মেলার পর্দা নামবে ৫ জানুয়ারি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি কৃষির ওপর নির্ভরশীল। কৃষিকে লাভজনক করে গড়ে তুলতে হবে। কৃষিকে বহুমুখীকরণ করতে পারলেই কৃষি ও কৃষক লাভবান হবে। এ সময় কৃষির আবাদ বাড়িয়ে আন্তর্জাতিক বাজারে নিয়ে যেতে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন তিনি।

গতকাল সন্ধ্যায় মেলা ঘুরে দেখা যায়, মেলায় এমন অনেক সবজি উঠেছে, খাওয়া দূরের কথা, যার নামটিও নগরের অনেকের অজানা। অনেকে নাম শুনলেও দেখেননি। সিমলা মরিচ, চেরি টমেটো এমন অপরিচিত নানা সবজি দেখা যায় মেলায়। তরতাজা হরেক রকমের সবজি দেখতে মেলায় ভিড় করছেন নগরবাসী। শুধু সবজি দেখা নয়, একসঙ্গে ঘরের বাজারও করে ফেরেন অনেকে। মেলা উপলক্ষে বিভিন্ন সবজির ওপরে ছাড়ও দিয়েছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। সেইসঙ্গে রয়েছে বিষমুক্ত সবজির নিশ্চয়তা। কম দামে বিষমুক্ত সবজির নিশ্চয়তা পেয়ে অনেক দর্শনার্থীই ব্যাগ ভরে বাজার করে ঘরে ফেরেন।

আগতের অধিকাংশই বলেন, নগরজীবনে তারা গুটিকয় সবজির সঙ্গে পরিচিত। বাংলাদেশে যে এত প্রকার সবজি হয় সে সম্পর্কে তাদের কোনো ধারণাই ছিল না। এখানে এসে তারা জানতে পেরেছেন।

এদিকে যারা আগে থেকে মেলার খবর জানতেন তাদের অনেকেই দেশি সবজির সঙ্গে পরিচয় করাতে সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে এসেছেন।

মেলায় সবজি প্রদর্শন ও বিক্রির পাশাপাশি আগ্রহীদের দেওয়া হচ্ছে নিরাপদ সবজির চাষ সম্পর্কে জ্ঞান। এ ছাড়া বিপণন প্রসারে বিভিন্ন বাজারের মডেল তুলে ধরা হয়েছে মেলায়। ভাসমান সবজি চাষ, দোতলা সবজি চাষ, বসতবাড়ির সবজি বাগানসহ সবজি আবাদের নানা পদ্ধতি তুলে ধরা হয়েছে। মেলায় গিয়ে মিলছে ছাদবাগান সম্পর্কে ধারণা ও মৌলিক প্রশিক্ষণের সুযোগ।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর