শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ২৩:৩৯

মৃতদের অর্ধেকের ছিল দীর্ঘমেয়াদি রোগ

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৯ শনাক্ত ১২৩৪

নিজস্ব প্রতিবেদক

মৃতদের অর্ধেকের ছিল দীর্ঘমেয়াদি রোগ

শুধু দীর্ঘমেয়াদি রোগে আক্রান্তরাই নন, যাদের এ ধরনের রোগ নেই তারাও সমান হারে মারা যাচ্ছেন করোনা সংক্রমণে।

গত এক দিনে ভাইরাসটির কারণে মৃত্যু হয়েছে ১৯ জনের। এর মধ্যে ৯ জনের (৪৭ দশমিক ৩৭ শতাংশ) ছিল ডায়াবেটিস, ক্যান্সার, উচ্চরক্তচাপ, হাঁপানি, কিডনিরোগসহ দীর্ঘমেয়াদি বিভিন্ন রোগ। বাকি ১০ জনের এ ধরনের কোনো রোগ ছিল না। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। তবে করোনা আক্রান্ত হলে দীর্ঘমেয়াদি রোগে আক্রান্ত ও বয়স্কদের মৃত্যুঝুঁকি বেশি হওয়ায় এ ধরনের কেউ করোনা পজিটিভ হলে দ্রুত তাদের হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। এখন পর্যন্ত মোট মৃতের ৫৪ শতাংশের বেশি ছিলেন ষাটোর্ধ্ব।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণে দেশে মৃত্যু কমেছে, বেড়েছে সংক্রমণ হার। গত এক দিনে ১৯ জন মারা গেছেন। আগের দিন মারা যান ৩০ জন। গতকাল সংক্রমণ হার ছিল ৯ দশমিক ৩৩ শতাংশ, যা আগের দিন ছিল ৮ দশমিক ৫৮ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ২২৭টি নমুনা পরীক্ষায় ১ হাজার ২৩৪ জনের দেহে সংক্রমণ শনাক্ত হয়। এ নিয়ে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ৬ হাজার ১০২ জন। এখন পর্যন্ত মোট মারা গেছেন ৭ হাজার ৩৭৮ জন। গত এক দিনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ হাজার ৩৪৫ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৪৬ হাজার ৬৯০ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৮ দশমিক ২৬ শতাংশ ও মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৬ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ১৯ জনের মধ্যে ১৫ জন ছিলেন পুরুষ ও চারজন নারী। হাসপাতালে ১৭ জন ও বাড়িতে দুজন মারা গেছেন। বয়স বিবেচনায় মৃতদের মধ্যে ১৪ জন ছিলেন ষাটোর্ধ্ব, দুজন পঞ্চাশোর্ধ্ব, দুজন চল্লিশোর্ধ্ব ও একজনের বয়স ছিল ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে। এর মধ্যে ১১ জন ঢাকা, চারজন চট্টগ্রাম, তিনজন ময়মনসিংহ ও একজন খুলনা বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন। বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয় ও ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদফতর।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর