শিরোনাম
শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর, ২০২৩ ০০:০০ টা
অবৈধ সম্পদ অর্জন

মির্জা আব্বাসের মামলার রায় পিছিয়ে ১২ ডিসেম্বর

নিজস্ব প্রতিবেদক

মির্জা আব্বাসের মামলার রায় পিছিয়ে ১২ ডিসেম্বর

সম্পদের তথ্য গোপন ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের নামে দুদকের দায়ের করা মামলার রায় ঘোষণার তারিখ পিছিয়ে ১২ ডিসেম্বর ধার্য করেছেন আদালত।

গতকাল ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬-এর বিচারক মঞ্জুরুল ইমামের আদালতে এ মামলার রায় ঘোষণার দিন ধার্য ছিল। তবে রায় প্রস্তুত না হওয়ায় তা পিছিয়ে ১২ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেন আদালত।

এর আগে ১৫ নভেম্বর এ মামলায় মির্জা আব্বাসসহ পাঁচজনের সাফাই সাক্ষ্য শেষ হয়। এরপর যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের জন্য ২২ নভেম্বর দিন ধার্য করেন আদালত। ওই দিন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ও আসামি পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায়ের জন্য ৩০ নভেম্বর দিন ধার্য করেন। গত ৩১ অক্টোবর সময় আবেদন নামঞ্জুর করে তার নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন একই আদালত। একই সঙ্গে ২ নভেম্বর মামলার যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের দিন ধার্য করেন। সেদিন মির্জা আব্বাসের গ্রেফতারের বিষয়ে পুলিশ প্রতিবেদন দিলে আদালত তাকে ৫ নভেম্বর হাজির করতে পরোয়ানা (পিডব্লিউ) ইস্যুর আদেশ দেন। এরপর ৫ নভেম্বর মির্জা আব্বাসকে আদালতে হাজির করা হলে এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সাফাই সাক্ষ্যের জন্য দিন রাখা হয়। রাজধানীর রমনা থানায় ২০০৭ সালের ১৬ আগস্ট মামলাটি করেছিলেন দুদকের উপপরিচালক মো. শফিউল আলম। এতে অবৈধভাবে ৭ কোটি ৫৪ লাখ ৩২ হাজার ২৯০ টাকার সম্পদ অর্জন ও ৫৭ লাখ ২৬ হাজার ৫৭১ টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগ আনা হয়।

সর্বশেষ খবর