শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২০:২০
আপডেট : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২০:২৬

'বিমানের দুর্নীতি বহুলাংশে কমে এসেছে'

নিজস্ব প্রতিবেদক

'বিমানের দুর্নীতি বহুলাংশে কমে এসেছে'
ফাইল ছবি

বেসরকারি বিমান চলাচল ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী সংসদে জানিয়েছেন, বিমানের দুর্নীতি ও ব্যয় সংকোচনের জন্য প্রশাসনকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। যার ফলে বিমানের দুর্নীতি বহুলাংশে কমে এসেছে। ফলে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বাংলাদেশ বিমানের মোট আয় ছিল ৫ হাজার ৭৯৫ কোটি টাকা, আর ব্যয় হয় ৫ হাজার ৭৭৭ কোটি ১০ লাখ টাকা। ফলে বিমানের নিট লাভ হয়েছে ২১৭ কোটি ৮০ লাখ টাকা। আবার ২০১৯ সালের জুলাই থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত অনিরীক্ষিত নিট লাভ হয়েছে ৪২৩ কোটি টাকা। 

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্ব একাদশ সংসদের ষষ্ঠ অধিবেশনে আজ টেবিলে উত্থাপিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারি দলের আবুল কালাম আজাদের লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান। 

প্রতিমন্ত্রী আরও জানান, বর্তমানে বাংলাদেশ বিমানের নিজস্ব ১২টি এবং লিজকৃত ৬টি বিমানসহ মোট ১৮টি উড়োজাহাজ আন্তর্জাতিক রুটে ১২টি দেশে ১৭টি এবং অভ্যান্তরীণ রুটে ৭টি স্টেশনে যাতায়াত করছে, যা পূর্ববর্তী যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি। এছাড়া বিমানের যাত্রীদের ব্যাগেজ ডেলিভারির সময় প্রথম ব্যাগেজ ১৮ মিনিট এবং শেষ ব্যাগেজ ৬০ মিনিট করার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। যার ফলে যাত্রী সেবার মান বেড়েছে। 

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার


আপনার মন্তব্য