Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০২:১৯

কোটার দ্রুত প্রজ্ঞাপন না হলে ফের আন্দোলন

ঢাবি ক্যাম্পাসে সমাবেশে বক্তারা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

কোটার দ্রুত প্রজ্ঞাপন না হলে ফের আন্দোলন

প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের সুপারিশ দ্রুত প্রজ্ঞাপন আকারে প্রকাশের দাবি জানিয়েছে আন্দোলনকারীরা। সুপারিশ বাস্তবায়নে টালবাহানা করলে ছাত্র সমাজ আবার রাজপথে নেমে আসবে বলে ঘোষণা দিয়েছে কোটা সংস্কার আন্দোলনের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন। গতকাল কোটা সংস্কার আন্দোলনের প্লাটফর্ম বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের বিক্ষোভ মিছিল শেষে এক সমাবেশে হাসান আল মামুন এই ঘোষণা দেন। এর আগে তারা দীর্ঘ দুই ঘণ্টা ধরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে কোটা প্রথার সংস্কারের প্রজ্ঞাপনের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে। মিছিলে তিন শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী অংশ নেয়। হাসান আল মামুন বলেন, মন্ত্রিপরিষদ সচিব যে সুপারিশ করেছে আমরা এটিকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছি। পাশাপাশি তৃতীয় এবং চতুর্থ শ্রেণির চাকরিতে যে কোটা প্রথা রয়েছে তার যৌক্তিক এবং সহনীয় সংস্কার চাচ্ছি।

তিনি বলেন, কোটা না রাখার যে সুপারিশ করা হয়েছে তাতে আমাদের আপত্তি নেই। তবে সেটার বাস্তবায়ন করতে হবে। ছাত্র সমাজের বিরুদ্ধে যে হয়রানিমূলক মামলা করা হয়েছে প্রজ্ঞাপনের আগেই সেগুলো প্রত্যাহার করে নিতে হবে। ছাত্রদের জন্য নিরাপদ ক্যাম্পাসের ব্যবস্থা করতে হবে। এ সময় কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে তারা বাধার সম্মুখীন হয়েছেন বলে অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, আমরা আজকে ক্যাম্পাসে এসে ছাত্রলীগের বাধার সম্মুখীন হয়েছি। আমরা এটা কখনো চাই না, আমরা সহাবস্থান চাই। আমরা চাই ক্যাম্পাসে প্রতিটি ছাত্র-ছাত্রী নিরাপদে চলাচল করুক।

আন্দোলনের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নূর বলেন, আমরা প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরির জন্য আন্দোলন করিনি। আমরা সব শ্রেণির সরকারি চাকরিতে কোটা প্রথার যৌক্তিক সংস্কারের জন্য আন্দোলন করেছি। কোটা সংস্কার করতে হলে আমাদের পাঁচ দফার আলোকে করতে হবে। এ সময় তিনি সরকারের প্রতি চূড়ান্ত প্রজ্ঞাপন তাদের পাঁচ দফার আলোকে করার অনুরোধ জানান। তিনি বলেন, ছাত্র সমাজকে আর হতাশ করবেন না, অতি দ্রুত প্রজ্ঞাপন দিন।


আপনার মন্তব্য