শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:২৩

নববধূ

শাকিব হুসাইন

Google News

মফিজের বউয়ের নাম জরিনা। তাদের বিয়ে হয়েছে চার মাস হলো। বিয়ের দিন জরিনাকে মিষ্টি ও ঠা-া স্বভাবের মেয়ে মনে হয়েছে। মফিজ তো সেদিন খুশিতে আটখানা। বাসর রাতে মফিজ জরিনাকে বলল, আচ্ছা, তোমার মোবাইল চালানোর অভ্যাস নেই তো? জরিনা বলল, একটু একটু চালাতে পারি। মফিজ বলল, এরকম স্ত্রীই আমি চেয়েছিলাম।

বিয়ের এক মাস পর জরিনা পুরোপুরি বদলে গেল। সারা দিন শুধু মোবাইলে পড়ে থাকে। ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউব, গুগল, ইমো, লাইকি, আরও কত কি! একদিন মফিজ বলল, তুমি না বলেছিলে মোবাইল চালাতে পার না? জরিনা বলল, আরে, তোমাকে যদি আগে সব বলে দিতাম তাহলে কি আর আজ আমার হাতে মোবাইল থাকত? সে যাই হোক আজকের বাজার কোথায়? মফিজ বলল, ঘরে বাজার নেই আমাকে আগে বলবে না?

তার স্ত্রী রেগে বলল, তোমাকে বলিনি ঠিক আছে। আজ সকালে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিছি যে ঘরে কোনো বাজার নেই। তুমি তো ফেসবুক অন করেই দেখনি। মফিজ বলল, এসব কী বল! জরিনা ধমক দিয়ে বলল, তাড়াতাড়ি বাজারে যাও। নইলে আজ না খেয়েই তোমাকে থাকতে হবে। মফিজ বলল, ক্যান শুধু কী আমিই না খেয়ে থাকব আর তুমি? উত্তরে তার স্ত্রী বলল, আমি কিছুক্ষণ পর অনলাইনে খাবার অর্ডার করব। এভাবে তাদের আরও কিছুদিন চলে গেল। একদিন মফিজ তার স্ত্রীকে বলল, শপিং করতে যাবে? জরিনা বলল, না, আজ যাব না। মফিজ বলল, কেন? জরিনা বলল, তোমার হোয়াটসঅ্যাপ চেক কর। ভিডিও পাঠাইছি যে আমি আজ শপিংয়ে যাচ্ছি না। তার কারণ আজকে প্রচ- রোদ হবে। আর রোদে গেলে আমার ত্বক পুড়ে যাবে। মেকআপ নষ্ট হয়ে যাবে। এই মেকআপ আমি বিদেশ থেকে অনলাইনে অর্ডার করে এনেছি। এই মেকআপ যদি নষ্ট হয় তাহলে আমার অতগুলো টাকা পানিতে চলে যাবে। মফিজ তো মহাবিপদে পড়ে গেল। মফিজ সঙ্গে সঙ্গে মোবাইল হাতে নিয়ে একটা ভিডিও করল। ‘প্রিয় ব্যাচেলর ভাইরা, তোমরা যদি কোনো দিন বিয়ে কর তাহলে পাত্রীর অনলাইন কার্যক্রম জেনেই বিয়ে কর।

- খানসা, দিনাজপুর।