শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২৩:৪৬

নেপালের বিরুদ্ধেও ৫০ বল ডট!

ক্রীড়া প্রতিবেদক

নেপালের বিরুদ্ধেও ৫০ বল ডট!

রবিন লিগ পদ্ধতির এসএ গেমসের পুরুষ ক্রিকেটে আরও একটি ম্যাচ বাকি নাজমুল হাসান শান্তদের। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আজ আনুষ্ঠানিকতার ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

গতকাল স্বাগতিক নেপালকে ৪৪ রানে হারিয়ে এস এ গেমসে সোনার লড়াই নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল। ফাইনালে শান্ত, সৌম্য সরকার, নাঈম শেখদের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-২৩। এর আগে ২০১০ সালে এসএ গেমসে সোনা জিতেছিল বাংলাদেশ। সেবার সোনা জিতেছিল ‘দ্বীপরাস্ট্র’ শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েই। স্বাগতিকদের হারানোর আগে শান্ত বাহিনী মালদ্বীপকে ১০৯ রানে ও ভুটানকে ১০ উইকেটে হারায়।        

ভারত ও পাকিস্তান অংশ নেয়নি। টেস্ট খেলুড়ে দেশের মধ্যে গেমসে খেলছে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা। দুই দলেরই অনূর্ধ্ব-২৩ খেলছে। বাকি তিন দল নেপাল, ভুটান ও মালদ্বীপের জাতীয় দল খেলছে। গতকাল বাংলাদেশ ও নেপালের জন্য ম্যাচটি ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তবে প্রতিপক্ষ হিসেবে নেপালের চেয়ে যোজন যোজন এগিয়ে। গতকাল ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয় ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৫৫ রান করে। তবে শুরুটা ভালো ছিল না শান্তবাহিনীর। নেপালের অলরাউন্ডার পরশ খাড়কার নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের মুখে ১৬ রানে সাজঘরে ফিরেন মোহাম্মদ নাঈম শেখ, সৌম্য সরকার ও সাইফ হাসান। সেখান থেকে দলকে টেনে নেন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত ও আফিফ হোসেন ধ্রুব। চতুর্থ উইকেট জুটিতে ইয়াসির আলীকে নিয়ে ৪৩ রান যোগ করেন। ইয়াসিরের বিদায়ের পর আফিফকে নিয়ে পঞ্চম উইকেট জুটিতে অধিনায়ক নাজমুল যোগ করেন ৫৬ বলে ৯৪ রান। স্বাগতিক নেপালের বোলারদের শাসন করে দুজনেই তুলে নেন হাফসেঞ্চুরি। শান্ত ৭৫ রানের হার না মানা ইনিংসটি খেলেন ৬০ বলে ৪ ছক্কা ও ৪ চারে। তবে ফিফটি করেন পাওয়ান সারাফকে ছক্কা মেরে। তবে অধিনায়কের চেয়ে আগ্রাসী ছিলেন আফিফ। ৫২ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন মাত্র ২৮ বলে ৬ চার ও এক ছক্কায়। এরমধ্যে বোহারার ওভারে ২০ রান নেন ১ ছক্কা ও ২ চারে। নেপালের সফল বোলার পরশ খাড়কা ৩ উইকেট নেন ১৫ রানের খরচে।

দুর্বল নেপালের বোলারদের বিরুদ্ধেও ৫০ বল ডট দিয়েছেন বাংলাদেশের পরীক্ষিত ব্যাটসম্যানরা।

১৫৬ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ২০ ওভারে ১১১ রানের বেশি করতে পারেনি নেপাল।


আপনার মন্তব্য