শিরোনাম
২৯ জুন, ২০২১ ২১:০২

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের শেষ দিন শৌচাগারে লুকিয়ে ছিলেন জেমিসন

অনলাইন ডেস্ক

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের শেষ দিন শৌচাগারে লুকিয়ে ছিলেন জেমিসন

কাইল জেমিসন।

ভারতের বিরুদ্ধে ৮ উইকেটে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল জিতে নেয় নিউজিল্যান্ড। শেষ দিনে ১৩৯ রান তাড়া করতে নেমেছিলেন কেন উইলিয়ামসনরা। সেই সময় চাপ বাড়ছিল কিউইদের সাজঘরে। কতটা চাপে পড়েছিলেন নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা, সেই অবস্থার কথাই জানালেন কাইল জেমিসন। অবস্থা এমনই হয়েছিল যে, শৌচাগারে বসে থাকতে হয়েছিল জেমিসনকে।

ফাইনালে দুই ইনিংসেই বিরাট কোহলির উইকেট নেন জেমিসন। তার চাপেই ভেঙে পড়ে ভারতীয় দল। ম্যাচের সেরাও হন তিনিই। তবে ম্যাচের শেষের দিকের উত্তেজনা এমন পর্যায় পৌঁছে যায় যে, শৌচাগারে লুকিয়ে ছিলেন তিনি। ৬ ফুট ৮ ইঞ্চির কিউই অলরাউন্ডার বলেন, ‘হয়তো ম্যাচের সব চেয়ে কঠিন সময় ওটাই ছিল।’ কোন সময়ের কথা বলেছেন জেমিসন?

১৩৯ রান তাড়া করতে নেমে প্রায় পর পর দুই ওপেনারকে হারায় নিউজিল্যান্ড। সেই সময় চাপে পড়ে গিয়েছিলেন জেমিসন। তিনি বলেন, ‘আমরা আসলে টিভিতে খেলা দেখছিলাম। মাঠের থেকে কিছুটা দেরিতে সম্প্রচার হচ্ছিল। প্রতিটা বলে ভারতীয় সমর্থকরা তখন চিৎকার করছে। তখন মনে হচ্ছিল, তাহলে কি আমাদের উইকেট পড়ছে। কিন্তু পরে দেখি এক রান হয়েছে, নয়তো ডিফেন্স করেছে। খুব কঠিন ছিল সেই সময়টা। চাপ কাটাতে কখনো কখনো শৌচাগারে গিয়ে লুকিয়ে থেকেছি। ওখানে আওয়াজ আসছিল না। ওই চিৎকার স্নায়ুর ওপর চাপ বাড়াচ্ছিল। তবে আমাদের রস (টেলর) এবং উইলিয়ামসন ছিল। ঠান্ডা মাথায় ওরা ম্যাচটা বার করে আনল।’

জয়ের পর কেমন ছিল সাজঘরের অবস্থা? জেমিসন বলেন, ‘খুব বেশি রকমের লাফালাফি কিছু হয়নি। আমরা একসঙ্গে সাজঘরে বেশ কিছুক্ষণ কাটাই। করোনার জন্য বাইরে গিয়ে আনন্দ করার কোনো ব্যাপার ছিল না। তবে এত দিনের লড়াই শেষে একসঙ্গে মিলে আনন্দ করাটাই ছিল বেশি সুখের।’

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া ও আনন্দবাজার

বিডি প্রতিদিন/এমআই