শিরোনাম
মঙ্গলবার, ৩১ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ টা

আবর্জনা পর্যবেক্ষণে ৫০ সিসি ক্যামেরা

সৈয়দ নোমান, ময়মনসিংহ

আবর্জনা পর্যবেক্ষণে ৫০ সিসি ক্যামেরা

বছর খানেক আগে থেকেই নির্ধারিত স্থানে ময়লা-আবর্জনা ফেলার জন্য নাগরিকদের উৎসাহ দিয়ে আসছে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন (মসিক)। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০টার মধ্যে সময়ও নির্ধারণ করে দেওয়া হয়। কিন্তু এরপরও অনেক নাগরিক বিষয়টি নিয়ে উদাস। সময় এবং নির্বাচিত স্থান কোনোটাই না মেনে ময়লা ফেলছে।

যেখানে-সেখানে আবর্জনা ফেলা ব্যক্তিদের ধরতে এবার ৫০টি স্থানে বসছে সিসিটিভি ক্যামেরা। এসব ক্যামেরা দিয়েই ধরা হবে নিজের খেয়াল খুশিমতো আবর্জনা ফেলা লোকদের। তবে প্রথমবার নির্ধারিত স্থানে ময়লা না ফেললে সাবধান করা হবে, দ্বিতীয় দফায় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবে মসিক। বিষয়টি জানাতে মাইকিংসহ নানা ধরনের প্রচারণার ব্যবস্থাও করা হয়েছে। এমনটি জানিয়ে মসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, সড়কের বিভিন্ন স্থানে আবর্জনা জমে থাকায় পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। এ নিয়ে সচেতন নাগরিক সমাজের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে।

মসিকের প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা মো. আরিফুর রহমান জানান, ৫০টি পয়েন্ট বেছে সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপনের কাজ চলছে। এরই মধ্যে ৩০টি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। চলতি সপ্তাহেই বাকি ক্যামেরাগুলো বসানোর কাজ শেষ হবে।

জেলা নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আবুল কালাম জানান, ‘নজরদারির এমন পন্থা সচরাচর দেখা যায় না। কিন্তু শুধু সিসিটিভি ক্যামেরা বসালেই হবে না, সিটি কর্তৃপক্ষকে তদারকি এবং কঠোর আইন প্রয়োগে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। তা না হলে এ উদ্যোগ কোনো কাজে আসবে না।’ জানতে চাইলে সিটি মেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, ক্যামেরার ফুটেজ নিরীক্ষণে খোলা হবে কন্ট্রোল রুম। চলবে নজরদারি। সিংহভাগ মানুষ সিসিটিভির ভয়ে হলেও যত্রতত্র জঞ্জাল নিক্ষেপ থেকে সরে আসবে। সুন্দর নগর গড়তে আমরা সবদিক থেকেই চেষ্টা চালাচ্ছি। তবে নগরবাসীর সহযোগিতাও প্রয়োজন।