শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৫:২৭

অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে আওয়ামী লীগ এখন শক্তিশালী : ভূমিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম :

অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে আওয়ামী লীগ এখন শক্তিশালী : ভূমিমন্ত্রী

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেছেন, অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ এখন শক্তিশালী।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণে দল ও সরকারের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নিজে না চাইলেও দলের কর্মীরা তাকে আসন্ন সম্মেলনে আবারও সভাপতি নির্বাচিত করবেন। তবে এক্ষেত্রে  বঙ্গবন্ধুকন্যা কিছু শর্ত দিতে পারেন। এসব শর্ত মানলে হয়তো তিনি দলীয় প্রধান হিসেবে থাকতে রাজি হতে পারেন।

চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলায় শহীদ বুদ্ধিজীবীদের আলোচনা সভায় ভূমিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউসুফ এর সভাপতিত্বে ও মেলা পরিষদ মহাসচিব মোহাম্মদ ইউনূসের সঞ্চালনায় এ আলোচনায় মুখ্য আলোচক ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা একুশে পদকপ্রাপ্ত সমাজবিজ্ঞানী প্রফেসর ড. অনুপম সেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীন আক্তার, আগরতলা থেকে আমন্ত্রিত কবি আশীষ কুমার বিদ্যা, গবেষক ড. দেবব্রত দেব রায়, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. সেকান্দর চৌধুরী। 

আলোচনায় ভূমিমন্ত্রী সরকারের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার ক্ষেত্রে নানা উদাহরণ টেনে ধরে বলেন, প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের মানসিকতার আরও পরিবর্তন আনতে হবে। আরও জনবান্ধব হতে হবে। মুখ্য আলোচক হিসেবে প্রফেসর ড. অনুপম সেন চট্টগ্রামে মুক্তিযুদ্ধ সংগঠনের নানা ঘটনা তুলে ধরেন এবং শহীদ বুদ্ধিজীবীদের হত্যাকাণ্ড নিয়েও কথা বলেন। বাঙালি জাতীয়তাবাদের উন্মেষ থেকে মুক্তির সংগ্রামের ধারাবাহিক বর্ণনা এবং বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বের গুরুত্ব তুলে ধরেন ড. সেন।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. শিরীন আক্তার বলেন, বুদ্ধিজীবীরা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। বাঙালি জাতিকে পঙ্গু করতেই বুদ্ধিজীবী হত্যাকাণ্ড হয়েছিল। বিএফইউজে’র সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী আলবদরের প্রধান যুদ্ধাপরাধী কাদের মোল্লাকে শহীদ' আখ্যা দেয়ায় সংগ্রামের ভূমিকার তীব্র সমালোচনা করে বলেন, জাতির সূর্য সন্তানদের মূল্যায়নের ক্ষেত্রে যেমন, তেমনি স্বাধীনতাবিরোধীদের আস্ফালনের  বিরুদ্ধেও আরো সজাগ সচেতন হতে হবে।

অনুষ্ঠানে বুদ্ধিজীবীদের বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করে বুদ্ধিজীবীদের ত্যাগ ও রাজনীতিবিদদের সংগ্রামের মূল্যায়নের ক্ষেত্রে চট্টগ্রামের কৃতী সন্তান জহুর আহমেদ চৌধুরী, এমএ আজিজ, এমএ মান্নান আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু, আতাউর রহমান খান কায়সার, এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী প্রমুখ নেতৃত্বের যথাযথ মূল্যায়নের দাবি করা হয়।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক/ফারুক তাহের


আপনার মন্তব্য

close