১১ নভেম্বর, ২০২৩ ০৯:২০

বাঁচলো না এক সাথে জন্ম নেয়া পাঁচ শিশুর একটিও

ঢামেক প্রতিনিধি

বাঁচলো না এক সাথে জন্ম নেয়া পাঁচ শিশুর একটিও

আপ্রাণ চেষ্টা করেও বাঁচানো গেলো না শিশুটিকে। দীর্ঘ ২৮ দিন ঢামেকের এনআইসিইউতে চিকিৎসাধীন থেকে অবশেষে মারা গেলো ঢামেকে এক সাথে জন্ম নেয়া পাঁচ সন্তানের মধ্যে বেঁচে থাকা একমাত্র শিশুটি।  

শিশুটি বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) দিবাগত রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় বলে নিশ্চিত করেন নবজাতক বিভাগের ইনডোর মেডিকেল অফিসার ডা. সাবিহা সুলতানা। তিনি বলেন, আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি, কিন্তু বাঁচাতে পারিনি। 

তিনি বলেন, আমরা আগেও জানিয়েছি, শিশুগুলো অপরিপক্ক অবস্থায় মাত্র ২৬ সাপ্তাহ বয়সে জন্ম নিয়েছিল, ওজনেও ছিল কম। তারপরও আমরা এনআইসিইউ তে ইনকিউবেটরে রেখে চেষ্টা করেছি। 

একই ঘটনায় এর আগে জন্ম নেয়া পাঁচ শিশুর মধ্যে এক দিনের ব্যবধানে চার শিশু মারা যায়। 

উল্লেখ্য, গত ১২ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় ঢামেকের গাইনি বিভাগে নরমালে একে একে পাঁচ শিশু জন্ম দিয়েছেন নরসিংদী শিবপুর উপজেলার বান্দারদিয়া গ্রামের সিএনজি চালক মামুন এর স্ত্রী মানসুরা বেগম (২২)। ওই দিন তিনি সকাল ৮ টায় প্রসব ব্যথা নিয়ে ভর্তি হন এবং জন্ম নেয় পাঁচ শিশু। জন্মের কিছু সময় পর এক শিশুর মৃত্যু হয়, চার শিশুকে দ্রুত ভর্তি রাখা হয় নবজাতক বিভাগে এনআইসিইউতে। সেখানে একদিনে ব্যবধানে তিন শিশুর মৃত্যু হয়। বেঁচে ছিল এক শিশু, সেটিও ২৮ দিন চিকিৎসাধীন থেকে মারা যায়। 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর