শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০১:০৭

রাজনৈতিকভাবে করতে হবে রোহিঙ্গা সংকটের সমাধান

সংবাদ সম্মেলনে জাতিসংঘ দূত

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজনৈতিকভাবে করতে হবে রোহিঙ্গা সংকটের সমাধান

বাংলাদেশে সফররত জাতিসংঘ মহাসচিবের মানবিক দূত আহমেদ আল মেরাইখি বলেছেন, শুধু মানবিক সহায়তা নয়, রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে রাজনৈতিক সমাধান প্রয়োজন। রোহিঙ্গাদের যে সংকট চলছে কেবল মানবিক সহায়তা দিয়ে এর সমাধান সম্ভব নয়। মানবিক সহায়তা শুধু তাদের বেঁচে থাকার জন্য মৌলিক চাহিদা পূরণ করতে পারে। কিন্তু সমস্যার পুরোপুরি সমাধান রাজনৈতিকভাবে হতে হবে। আর এ জন্য সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। গতকাল রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক হেনরিয়েটা ফোরের সঙ্গে বাংলাদেশ সফর করছেন আহমেদ আল মেরাইখি। ২৫-২৬ ফেব্রুয়ারি কক্সবাজারে দুই দিনের মিশন শেষে এ সংবাদ সম্মেলনে আসেন তারা।

ড. আল মেরাইখি বলেন, ‘এ প্রজন্মের রোহিঙ্গাদের পেছনে বিনিয়োগের জন্য আমাদের এ মুহূর্তে এবং সম্মিলিতভাবে সম্মত হতে হবে, যাতে তারা আজ তাদের জীবনকে আরও ভালোভাবে পরিচালনা করতে পারে এবং তারা যখন মিয়ানমারে ফিরে যেতে সক্ষম হবে, তারা যেন সেখানকার সামাজিক পুনর্নির্মাণে গঠনমূলক অংশ হতে পারে। বর্তমানে আইনি পরিচয় ব্যতীত তারা পাচারকারী ও মাদক ব্যবসায়ীদের অনুকম্পায় রয়েছে।’

সংবাদ সম্মেলনে ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক হেনরিয়েটা ফোর বলেন, ‘বৈশ্বিক সমাজ হিসেবে আমাদের যে বাধ্যবাধকতা রয়েছে তা অপরিমেয়। যেসব শিশু ও তরুণ জনগোষ্ঠীকে বিশ্ব রাষ্ট্রহীন বলে আখ্যায়িত করেছে, তাদের নিজেদের সুন্দর জীবন গঠনে শিক্ষা ও দক্ষতা অর্জন প্রয়োজন। মিয়ানমারে তাদের কোনো আইনি পরিচয় বা নাগরিকত্ব নেই। বাংলাদেশেও শিশুদের জন্মনিবন্ধন করা হচ্ছে না, তাদের বৈধ পরিচয় নেই এবং তাদের শরণার্থীর মর্যাদা নেই। যারা মিয়ানমারে তাদের বাড়িতে ফিরে যাওয়ার যোগ্য, তাদের জন্য মিয়ানমারের পরিস্থিতি যতক্ষণ পর্যন্ত অনুকূল না হচ্ছে ততক্ষণ রোহিঙ্গা শিশুরা রাষ্ট্রহীন সংখ্যালঘু অবস্থায় থাকবে। এর ফলে এই শিশুরা আনুষ্ঠানিক শিক্ষার পাঠ্যসূচি গ্রহণের বাইরে থাকছে এবং তাদের বিপণনযোগ্য দক্ষতা অর্জিত হচ্ছে না।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর