শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০৩

নৌকার মাঝি সাহাদারা মান্নান ধানের শীষের কাণ্ডারি কে?

আব্দুর রহমান টুলু, বগুড়া

নৌকার মাঝি সাহাদারা মান্নান ধানের শীষের কাণ্ডারি কে?

আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল মান্নানের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দি-সোনাতলা) আসনে এরই মধ্যে তফসিল ঘোষণা হয়েছে।  এ আসনে ধারাবাহিক জয়ে মরিয়া আওয়ামী লীগ। অন্যদিকে হারানো আসন পুনরুদ্ধারে মাঠে নামছে বিএনপি। আওয়ামী লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত হলেও বিএনপির একাধিক প্রার্থী মনোনয়নপ্রত্যাশী। আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি ধানের শীষের কান্ডারি নির্ধারণ করবে বিএনপির পার্লামেন্টারি বোর্ড। এদিকে নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে কোন্দল প্রকাশ্য হচ্ছে। কার্যত, উভয় দলই এখন কোন্দলে বিপর্যস্ত। বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দি ও সোনাতলা উপজেলা নিয়ে গঠিত বগুড়া-১ আসন। এ আসনের সদ্য প্রয়াত এমপি আবদুল মান্নান বিএনপির প্রার্থীকে পরাজিত করে প্রথম ২০০৮ সালে এমপি নির্বাচিত হন। এরপর আওয়ামী লীগ থেকে আবারো মনোনীত হয়ে ২০১৪ সালে এবং  সর্বশেষ ২০১৮ সালের সংসদ নির্বাচনে তৃতীয়বারের মতো তিনি এমপি নির্বাচিত হন। গত ১৮ জানুয়ারি এমপি আবদুল মান্নান ইন্তেকাল করেন। ১৬ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হয়েছে। আগামী ২৯ মার্চ ভোট গ্রহণ হবে বগুড়া-১ আসনে। মনোনয়ন দাখিলের শেষ সময় ২৭ ফেব্রুয়ারি এরপর ৯ মার্চ চূড়ান্ত প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ করা হবে। এদিকে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত হয়েছেন প্রয়াত এমপি আবদুল মান্নানের স্ত্রী সাহাদারা মান্নান শিল্পী। প্রয়াত এমপি আবদুল মান্নানের সহধর্মিণী সাহাদারা মান্নান আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে ইতিমধ্যেই দলীয় নৌকা প্রতীক পেয়েছেন। বিএনপি এখনো প্রার্থী ঠিক করতে পারেনি।

বগুড়া জেলা নির্বাচন কমিশন অফিস জানায়, বগুড়া-১ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৮ হাজার ৯০২ জন। এর মধ্যে সারিয়াকান্দি উপজেলার ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৬৭ হাজার ৭৮২ জন এবং সোনাতলা উপজেলার ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৪১ হাজার ১২০ জন। প্রয়াত সংসদ সদস্য আবদুল মান্নানের সহধর্মিণী হিসেবে জনমানুষের সঙ্গে এলাকায় কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে সাহাদারা মান্নানের। সে অভিজ্ঞতা এবার কাজে লাগিয়ে প্রয়াত এমপির অসাপ্ত কাজ সম্পন্ন করতে নিজেকে নিয়োজিত করবেন বলে তিনি ঘোষণাও দিয়েছেন।

এদিকে বগুড়া-১ আসন পুনরুদ্ধারে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে বিএনপি। দলটির সম্ভাব্য প্রার্থীরা মাঠে নেমেছেন। ভোটারদের কাছে যাচ্ছেন, শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন। পোস্টার লাগিয়ে বিভিন্নভাবে নিজেদের প্রার্থিতা জানান দিচ্ছেন। এ আসনে সাবেক এমপি ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য কাজী রফিকুল ইসলাম মনোনয়ন প্রত্যাশী। জিয়া শিশু কিশোর সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন চৌধুরীও ধানের শীষ প্রতীক প্রত্যাশী। এই দুই প্রার্থী নিজেদের মতো করে গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন এবং ঢাকা-লন্ডন যোগাযোগ রাখছেন। এ ছাড়াও বগুড়া ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-ড্যাবের সভাপতি অধ্যাপক ডা. শাহ মো. শাহজাহান আলী, সোনাতলা উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি, একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির, সারিয়াকান্দি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাছুদুর রহমান হিরু মন্ডলও ধানের শীষের টিকিট পেতে তৎপরতা চালাচ্ছেন। অন্যদিকে আওয়ামী লীগ বিএনপির ভিড়ে জাতীয় পার্টি থেকে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন সারিয়াকান্দি উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি অধ্যক্ষ মোকছেদুল আলম।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর