শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৭ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৬ নভেম্বর, ২০২০ ২৩:২৫

আসেম সম্মেলনের লক্ষ্য হোক জীবন-জীবিকা ও ব্যবসাবাণিজ্য সুরক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক

চতুর্দশ আসেম সম্মেলনের এশীয়া ইউরোপের ৪৫টি অর্থমন্ত্রীরা মনে করেন এবারের সম্মেলনের মূলনীতি হওয়া উচিত মানুষের জীবন-জীবিকা ও ব্যবসা-বাণিজ্য সুরক্ষা।

গতকাল ভার্চুয়াল মাধ্যমে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বাংলাদেশ ভার্চুয়াল ভিত্তিতে উক্ত সভার আয়োজন করে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভায় ভিডিও বক্তৃতার মাধ্যমে সবাইকে স্বাগত জানান। ৪৫টি আসেম অংশীদার দেশের অর্থমন্ত্রী ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা এবং এশিয়া-ইউরোপ ফাউন্ডেশন (আসেফ) ও আশিয়ান+৩ ম্যাক্রোইকোনমিক রিসার্চ অফিস (আমরো) উক্ত সভায় অংশগ্রহণ করে। বিশ্বব্যাংক, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল ও এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের প্রতিনিধিরা মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। সভায় অর্থমন্ত্রী ও অন্য ডেলিগেশন প্রধানরা মতামত ব্যক্ত করেন ও অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন। উক্ত সভার মূল প্রতিপাদ্য ছিল ‘কভিড-১৯  মোকাবিলা : একটি শক্তিশালী, টেকসই, অন্তর্ভুক্তিমূলক ও ভারসাম্যপূর্ণ অর্থনৈতিক পুনর্গঠন নিশ্চিতকরণ’। অর্থমন্ত্রীরা বৈশ্বিক মহামারী মোকাবেলায় ত্রাণ ও পুনর্গঠন বিষয়ে এবং টেকসই উন্নয়ন অভীষ্টসমূহ যথাসময়ে বাস্তবায়নে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ বিষয়ে আলোকপাত করেন ।  আসেম অর্থমন্ত্রী সভা উল্লেখ করে যে, কভিড-১৯ বৈশ্বিক মহামারী বিশ্বব্যাপী অভূতপূর্ব চ্যালেঞ্জ ও অসহনীয় দুর্ভোগ নিয়ে এসেছে। ফলে দশ লাখেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে, সামাজিক-অর্থনৈতিক পরিস্থিতি, জনস্বাস্থ্য, পরিবেশ ও সমাজ বড় ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে এবং বিশ্ব অর্থনীতি এক অনিশ্চিত সময় অতিক্রম করছে। সভায় উল্লেখ করা হয় যে, বর্তমান অবস্থা ও অভূতপূর্ব পরিস্থিতি হতে উত্তরণে ও বৈশ্বিক এজেন্ডা বাস্তবায়নে শক্তিশালী বহুপাক্ষিক সমন্বিত প্রচেষ্টা গ্রহণ করা প্রয়োজন। কভিড-১৯ মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ বর্তমানে অনেক আসেম অংশীদার দেশের ওপর যেভাবে প্রভাব ফেলছে তা নিয়ে উক্ত সভায় উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়।  অর্থনৈতিক পরিবেশ ও পরিস্থিতির ওপর কভিড-১৯ এর  নেতিবাচক প্রভাব ও চ্যালেঞ্জের মাত্রা বিবেচনায় নিয়ে সভায় সবাই একমত হয় যে মহামারীর সামাজিক ও অর্থনৈতিক প্রভাব হ্রাস, জীবন, জীবিকা ও ব্যবসা-বাণিজ্য সুরক্ষা এবং কভিড-১৯ এর কার্যকর সমাধান বের করাই এখন আমাদের সবচেয়ে জরুরি সমষ্টিগত অগ্রাধিকার। ২০২১ সালের মাঝামাঝি নমপেন-এ অনুষ্ঠেয় পরবর্তী আসেম সামিট-এর সাফল্য কামনা করা হয়।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর