শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:১৪

করোনা পজিটিভ-নেগেটিভ রিপোর্ট নিয়ে ধূম্রজাল

সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আইইডিসিআরের রিপোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট

যুক্তরাজ্য থেকে আসা ২৮ প্রবাসী করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হওয়ার এক দিন পরই ২৫ জন নেগেটিভ প্রমাণিত হলেন। এ নিয়ে দেখা দিয়েছে ধূম্রজাল। দ্বিতীয় দফার পরীক্ষায় পজিটিভ প্রমাণিত হওয়াদের হাসপাতালে কেবিনে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। বাকিদের রাখা হয়েছে ওয়ার্ডে। তবে নেগেটিভ শনাক্ত হওয়াদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) রিপোর্টের অপেক্ষা করছেন সংশ্লিষ্টরা। আইইডিসিআর গতকাল ওই প্রবাসীদের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠিয়েছে। ২১ জানুয়ারি যুক্তরাজ্য থেকে বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইটে সিলেটে পৌঁছেন ১৫৭ প্রবাসী। তাদের হোটেলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। এরপর ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয় সিলেটের বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সীমান্তিকের ল্যাবে। সোমবার ফলাফলে দেখা যায়, ২৮ প্রবাসী করোনা পজিটিভ। এ নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়। পরদিন ফের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয় শাহজালাল  বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে। এ পরীক্ষায় ২৫ জনই নেগেটিভ। পজিটিভ হন বাকিরা। মাত্র এক দিনের ব্যবধানে দুই ল্যাবে দুই ধরনের ফল আসা নিয়ে ধূম্রজাল সৃষ্টি হয়। উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে গতকাল বৈঠকে বসেন স্বাস্থ্য অধিদফতর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয় ও সিলেট সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কর্মকর্তারা। এদিকে ২৮ প্রবাসী পজিটিভ হওয়ার খবরে মঙ্গলবার আইইডিসিআরের সাত সদস্যের একটি দল সিলেটে আসেন। গতকাল দলটি এসব প্রবাসীর নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠান। অনুষ্ঠিত বৈঠকে আইইডিসিআরের রিপোর্ট না আসা অবধি এসব প্রবাসীকে হাসপাতালে রাখার সিদ্ধান্ত হয়।

স্বাস্থ্য অধিদফতর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান বলেন, ‘যুক্তরাজ্য ফেরতদের সিলেট সদরের খাদিমপাড়ায় ৩১ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে রাখা হয়েছে। দ্বিতীয় দফায় যারা নেগেটিভ তারা আছেন ওয়ার্ডে। আর পজিটিভদের কেবিনে রাখা হয়েছে। আইইডিসিআর গতকাল সবার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠিয়েছে। তাদের রিপোর্ট পাওয়ার পর এসব প্রবাসীর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

এদিকে এক দিনের ব্যবধানে পজিটিভদের নেগেটিভ হওয়া নিয়ে নানা গুঞ্জন ছড়াচ্ছে সিলেটে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গতকালের বৈঠকে আপাতত বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে যুক্তরাজ্য থেকে আসাদের নমুনা পরীক্ষা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে এক সূত্র জানিয়েছেন। এ ছাড়া আইইডিসিআরের রিপোর্টেও যদি বেশির ভাগ নেগেটিভ ফল আসে তবে সীমান্তিকের পরীক্ষার বিষয়টি নিয়ে তদন্তেরও সিদ্ধান্ত হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর