শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৩৬

তৃণমূলের স্বাস্থ্যসেবায় যোগ হচ্ছে অক্সিজেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

দেশের উপজেলা পর্যায়ে তৃণমূলের স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে জরুরি মুহূর্তে কোনো রোগীর অক্সিজেন প্রয়োজন হলে একমাত্র ভরসা জেলা হাসপাতাল। তৃণমূল পর্যায়ে সংকটাপন্ন অনেক রোগীর অক্সিজেন সংকটে পথেই মৃত্যু ঘটে। কারণ জেলা পর্যায়ে হাতে গোনা কিছু হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা থাকলেও উপজেলা পর্যায়ে তা মোটেই নেই।  তবে এবার সরকারি উদ্যোগে উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এ মাসেই চালু হবে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতাল ও কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর চট্টগ্রাম বিভাগ কাজটি বাস্তবায়ন করছে।

জানা যায়, ‘জরুরি ভিত্তিতে অক্সিজেন সরবরাহ’ শীর্ষক প্রথম প্রকল্পের আওতায় তৃণমূলের উপজেলা পর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবায় অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা করা হচ্ছে। খাগড়াছড়ি ১০০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে ১৩৬টি পয়েন্ট এবং চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা স্থাপন করা হচ্ছে। হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটার, জরুরি বিভাগ, আইসিইউ, অপারেশন পরবর্তী পর্যবেক্ষণ বিভাগে অক্সিজেন সরবরাহ করা হবে। প্রতিটি অক্সিজেন সরবরাহ স্থাপনে ৩ কোটি ৬০ লাখ টাকা করে ব্যয় হচ্ছে। 

স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর চট্টগ্রাম বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মোহসীন বলেন, উপজেলার তৃণমূল পর্যায়ের হাসপাতালসমূহে অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা অনেক জরুরি। করোনাকালীন সময়ে বিষয়টি সবাই উপলব্ধি করেছেন। তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ির সদর হাসপাতালে অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এগুলো বাস্তবায়ন হলে কাউকে অক্সিজেনের প্রয়োজনে উপজেলা থেকে জেলা সদর হাসপাতালে আসতে হবে না।

জানা যায়, খাগড়াছড়ির দুর্গম এলাকার ১০০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে নিয়মিতই শ্বাসকষ্ট ও হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রোগীরা আসেন। কিন্তু প্রয়োজনীয় অক্সিজেন সাপোর্ট না থাকায় সংকটাপন্ন অবস্থায় রোগীকে ১২২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে আনতে হয়। কিন্তু দীর্ঘ পথের ধকল ও যানজট পাড়ি দিয়ে অনেক রোগীর মৃত্যু ঘটে। তবে এবার সদর হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তাতে অক্সিজেন অপ্রতুলতার সংকট কাটবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর