শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৮ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ মার্চ, ২০২১ ২২:৪৬

চট্টগ্রামের মাদরাসায় ফের শিশু নির্যাতন

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার দাঁতমারা ইউনিয়নের হাসনাবাদ গ্রামের একটি মাদরাসায় আবার এক শিশু শিক্ষার্থী নির্যাতনের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলমকে (৩০) গত মঙ্গলবার রাতে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করা হলে আদালত কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয়। অভিযুক্ত শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম ফটিকছড়ির পাইন্দং ইউনিয়নের উত্তর পাইন্দং গ্রামের ‘হযরত ইমাম-এ-আযম আবু হানিফা (রহ.) গাউছিয়া সুন্নিয়া হেফজ ও এতিমখানার’ শিক্ষক। তার বাড়ি কুমিল্লা জেলার চান্দিনা উপজেলায়। মারধরের শিকার শিশুটির বয়স ৮ বছর। তার বাড়ি একই উপজেলার দাঁতমারা ইউনিয়নের হাসনাবাদ গ্রামে। এর আগে গত ৯ মার্চ হাটহাজারীর মারকাযুল কোরআন ইসলামিক একাডেমি মাদরাসায় শিশু শিক্ষার্থী ইয়াসিনের ওপর এবং গত ১১ মার্চ সাতকানিয়ার গারাংগিয়া রংগিপাড়া হেফজখানা ও এতিমখানায় নির্মম নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, মারধরের ঘটনায় শিশুটির পিতা ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) কার্যালয়ে এসে লিখিত অভিযোগ করেন। তিনি উল্লেখ করেন, সোমবার ছেলেকে দেখতে মাদরাসায় যান। এ সময় ছেলে ঠিকমতো নড়তে চড়তে পারছিল না। নির্যাতনে শারীরিক ও মানসিক  নির্যাতনে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তিনি মাদরাসা থেকে ছেলেকে নিয়ে ডাক্তার দেখিয়ে বাসায় নিয়ে যান। অভিযোগ পেয়ে ইউএনও বিষয়টি আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশনা দিয়ে শিশুটির বাবাকে ফটিকছড়ি থানায় পাঠান। মঙ্গলবার মাদরাসা থেকে ওই শিক্ষককে আটক করা হয়েছে।

ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম বলেন, ৮ বছর বয়সী ছাত্রকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ পাওয়ার পর অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করা হয়। পরে তাকে আদালতে হাজির করা হলে আদালত কারাগারে প্রেরণ করে।


আপনার মন্তব্য