শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৮ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ মে, ২০২১ ২২:৪৯

নাটোরে ভাইকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ ৩ সহোদরের বিরুদ্ধে

নাটোর প্রতিনিধি

Google News

নাটোরের বড়াইগ্রামে গনি প্রামাণিক নামে একজনকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে সহোদর তিন ভাইয়ের বিরুদ্ধে। গতকাল সকালে বড়াইগ্রাম উপজেলার রয়না ভরট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে গতকাল সকালে সহোদর তিন ভাই আবদুর রাজ্জাক, রফিক ও গোলাম পরস্পর একজোট হয়ে সহোদর গনি প্রামাণিককে বাড়ির সামনে শিকল দিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে লাঠি ও বাটাম দিয়ে এলোপাতাড়ি মারপিট করে। এতে গনি অজ্ঞান হয়ে গেলে বড়ভাই আবদুর রাজ্জাক ৯৯৯-এ কল দেয়। পরে বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে গনি প্রামাণিককে শেকলমুক্ত করে চলে যায়। পরবর্তীতে সন্ধ্যায় পথচারীরা পাশের খালে তাকে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। পরে খবর দিলে বড় ভাই আবদুর রাজ্জাক ও রফিক তাকে উদ্ধার করে বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১টার দিকে গনি প্রামাণিকের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

নিহতের বড় ভাই আবদুর রাজ্জাক জানান, আমার ভাই আবদুল গনি একজন মানসিক রোগী, যাকে তাকে মারধর করে। সেজন্য তাকে শেকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছিল।

এলাকাবাসী বলছে, গনির ভাইয়েরা একাধিক মামলার আসামি। তাকে পিটিয়ে হত্যা করে পাগল সাজিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে ভাইয়েরা দোষী হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই বিভাগের আরও খবর