শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২১ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ মে, ২০২১ ২২:৫৬

পর্যটনের ১০৪ স্পটের নিরাপত্তায় ৪০ হাজার প্যাট্রলিং

মাহবুব মমতাজী

পর্যটনের ১০৪ স্পটের নিরাপত্তায় ৪০ হাজার প্যাট্রলিং
জাফলং জিরো পয়েন্ট এলাকায় পর্যটকদের নিরাপত্তায় নিয়োজিত ট্যুরিস্ট পুলিশ -বাংলাদেশ প্রতিদিন
Google News

দেশের ১০৪ পর্যটন কেন্দ্রে পর্যটকদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে বছরে প্রায় ৪০ হাজার প্যাট্রলিং করছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। যদিও ৬৪ জেলায় ছোট-বড় ট্যুরিস্ট স্পট রয়েছে ১ হাজার ৬৭৫টি। আকর্ষণীয় স্পটগুলোয় নিরাপত্তায় নিয়োজিত আছে প্রায় ১ হাজার ৪০০ ট্যুরিস্ট পুলিশ। ৭৩ অফিসের মাধ্যমে সেবা দিচ্ছে তারা। স্পটগুলোয় ২৪ ঘণ্টাই প্যাট্রলিংয়ের মাধ্যমে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে।

ট্যুরিস্ট পুলিশ সূত্র জানান, গত পাঁচ বছরে হারিয়ে যাওয়া ২৩৪ ছোট ছেলেমেয়েকে তারা উদ্ধার করেছেন। পানি থেকে উদ্ধার করেছেন ৪৩ শিশুকে। পর্যটন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫ লাখ পিস ইয়াবা জব্দ করেছেন। বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে ২৫৭ জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছেন। সংস্থাটি বলছে, দেশের বিভিন্ন এলাকায় বছরে ৯ কোটি পর্যটক আসেন; বিদেশি পর্যটক আসেন ৩ লাখ ৭০ হাজার।

জানা গেছে, ২০১৩ সালের ৬ নভেম্বর যাত্রা হয় ট্যুরিস্ট পুলিশের। পর্যটকদের নিরাপত্তার পাশাপাশি হোটেল-মোটেলের নিরাপত্তা এবং জনগণকে সচেতন করতে নানা ধরনের কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে সংস্থাটি। কিন্তু আগে কোনো অপরাধ সংঘটিত হলে তদন্ত করার ক্ষমতা ছিল না তাদের। ২০২০ সালের ৩ জুন পর্যটকদের ফৌজদারি অপরাধসহ ২২ ধরনের অপরাধমূলক কর্মকান্ড তদন্তের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে তাদের।

ট্যুরিস্ট পুলিশের প্রধান ডিআইজি মোর্শেদুল আনোয়ার খান এই প্রতিবেদককে বলেন, ‘আমাদের পর্যটন কেন্দ্রগুলোয় আকর্ষণ বাড়াতে সার্ভিস ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। অন্যান্য স্থানে রাত গভীর হলে নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশ যেখানে নাগরিকদের বলছে “আপনারা ঘরে ফিরে যান”, সেখানে পর্যটন কেন্দ্রে আমরা বলছি “রাতভর যত ইচ্ছা আপনারা উপভোগ করুন, আমরা ২৪ ঘণ্টাই আপনাদের পাহারায় আছি”।’ তিনি বলেন, ‘পর্যটনে সেবা বৃদ্ধি করার জন্য আমাদের ট্যুরিস্ট পুলিশকে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। দেশের পর্যটন বিকাশে ট্যুরিস্ট পুলিশকে শক্তিশালী করা দরকার।’

এদিকে বিদেশি পর্যটকদের কাছে দেশের ট্যুরিস্ট স্পটগুলোর তথ্য ও নিরাপত্তার বিষয়গুলো তুলে ধরতে সব বিমানবন্দরে নিজস্ব ডেস্ক চায় ট্যুরিস্ট পুলিশ। বিমানবন্দরে বিদেশিদের কাছে ইতিবাচক বিষয় তুলে ধরাই হবে তাদের কাজ। বিমানবন্দরগুলোয় ট্যুরিস্ট পুলিশের সদস্যরা থাকবেন নিরস্ত্র অবস্থায়। এ ব্যাপারে মন্ত্রণালয়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পাঠানো হয়েছে। দ্রুত এ বিষয়ে মন্ত্রণালয় থেকে ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যাবে বলে মনে করছেন ট্যুরিস্ট পুলিশের কর্মকর্তারা।

এই বিভাগের আরও খবর