শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৬ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ এপ্রিল, ২০২০ ২৩:২৬

মুক্তামনির নানাকে কুপিয়ে হত্যা, আহত ২

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

মুক্তামনির নানাকে কুপিয়ে  হত্যা, আহত ২

রক্তনালির টিউমারে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া দেশব্যাপী আলোচিত সাতক্ষীরার মুক্তামনির নানা শওকত সরদারকে (৬০) তুচ্ছ ঘটনায় কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।  এ সময় আহত হয়েছে নিহতের ছেলে ইমন ও চঞ্চল।

শনিবার রাতে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত শওকত সরদার সদর উপজেলার লাবসা ইউনিয়নের শিবনগর গ্রামের মৃত মুক্তার সরদারের ছেলে ও রক্তনালি টিউমারে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া দেশব্যাপী আলোচিত মুক্তামনির নানা। নিহতের জামাতা ও মুক্তামনির বাবা ইব্রাহিম হোসেন জানান, গত শুক্রবার উত্তর শিবনগর জামে মসজিদে জুমার নামাজে মসজিদ উন্নয়নে টাকা তুলছিলো প্রতিবেশী শামিম নামে এক যুবক। নিহত শওকতের ছেলে হাবিবুর রহমান দানের টাকা না দেওয়ায় মসজিদের মধ্যেই তাকে অপমান করে শামিম। নামাজ শেষে হাবিবুর বাড়ি যেয়ে তার পিতা শকওকতকে বিষয়টি জানান। শওকত সাথে সাথে মসজিদের সামনে এসে শামিমের পিতা ফজলুকে ঘটনাটি জানায়। এসময় উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে শামিমের নেতৃত্বে ফারুক, শরিফুলসহ ৮/১০ জন সন্ত্রাসী ধারালো দা দিয়ে শওকতের মাথায় কোপ মারে এবং অন্যান্যরা এলোপাতাড়িভাবে লাঠি দিয়ে মারপিট করে। এ সময় বাবা শওকতকে ঠেকাতে এসে তার দুই ছেলে ইমন ও চঞ্চল আহত হন। স্থানীরা শওকতকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরার সদর হাসপাতেল ভর্তি করলে সেখানে তার অবস্থার অবনতি দেখে চিকিৎসকরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার রাতে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে, আহত ইমন এখনও সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে ও চঞ্চল সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছে। সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান জানান, বিষয়টি শুনেছি তবে কেউ এখনও অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে আইসগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর