শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৩ অক্টোবর, ২০২০ ২৩:৫২

সড়ক যেন ধান চাষের জমি

নওগাঁ প্রতিনিধি

এলজিইডির আওতায় নওগাঁর রাণীনগর-কালীগঞ্জ-আত্রাই সড়কটি বর্তমানে ধান চাষের জমিতে পরিণত হয়েছে। জনগুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটির প্রেমতলী থেকে আত্রাই অভিমুখের বনমালীকুড়ি পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৩ কিলোমিটার রাস্তাটির মাঝে প্রায় শতাধিক বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। শুকনো মৌসুমে এপাশ ওপাশ দিয়ে যেতে পারলেও বর্ষা মৌসুমে হেঁটে যাওয়াই ঝুঁকিপূর্ণ। অপরদিকে বনমালীকুড়ি থেকে আত্রাই যাওয়ার প্রায় সাড়ে ১৩ কিলোমিটার সড়কের অধিকাংশ অংশেই পাকা উঠে গিয়ে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে বছরের পর বছর এই অঞ্চলের প্রায় শতাধিক গ্রামের কয়েক লাখ মানুষকে প্রতিদিনই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে। চলাচলের এটিই একমাত্র সড়ক হওয়ার কারণে কৃষিনির্ভর এই অঞ্চলের মানুষদের বছরের পর বছর চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। সড়ক খারাপ হওয়ার কারণে এই অঞ্চলের কৃষকরা তাদের উৎপাদিত কৃষি পণ্যের নায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছেন দীর্ঘদিন। শরিয়া গ্রামের শফিকুর, হালিমসহ অনেকেই বলেন, শরিয়া, বনমালীকুড়ি, কালীগঞ্জসহ প্রায় শতাধিক গ্রামের মানুষের নওগাঁ, রাণীনগর, আত্রাই চলাচলের একমাত্র সড়ক এটি। কিন্তু বছরের পর বছর কোনো সংস্কার কিংবা মেরামত না করায় আজ এই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি বড় বড় খানাখন্দে পরিণত হয়েছে। বর্ষা মৌসুমে গর্তে পানি জমে থাকার কারণে বোঝা যায় না যে কোনটি সড়ক আর কোনটি গর্ত।

নওগাঁ এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মাকসুদুল আলম বলেন, বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানোর পর সংস্কার কাজের প্রকল্পের অনুমোদন পাওয়া গেছে। দ্রুতই দরপত্র আহ্বান করা হবে। অর্থ বরাদ্দ পেলেই আগামী মাস থেকে এই সড়কটি সংস্কারের কাজ শুরু করা হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর