শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:১১

হুমকিতে আমতলীর জীববৈচিত্র্য

আমতলী প্রতিনিধি

হুমকিতে আমতলীর জীববৈচিত্র্য

মাত্রাতিরিক্ত সিসার প্রভাবে হুমকিতে বরগুনার আমতলী উপজেলার অবৈধ সিসা কারখানা সংলগ্ন গুলিশাখালী ইউনিয়নের আঙ্গুলকাটা গ্রামের পাঁচ হাজার মানুষ ও কয়েক হাজার গবাদি পশু। ওই গ্রামের পানিতে সিসা নেই। মাটিতে প্রয়োজনের তুলনায় ১৩৮ গুণ ও খড়ে ২ হাজার ৫৫৬ গুণ বেশি সিসার উপস্থিতি পেয়েছে বাংলাদেশ মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউট। মাত্রাতিরিক্ত সিসার বিষক্রিয়ার গত ডিসেম্বর মাসে ওই গ্রামের ১৫টি গরু মারা গেছে। অসুস্থ হয়ে মৃত্যুর মুখে অন্তত আরও ২৫টি গরু। দ্রুত মাত্রাতিরিক্ত সিসার বিষক্রিয়া থেকে প্রাণিকুল ও জীববৈচিত্র্য রক্ষায় কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। জানা গেছে, ২০১৮ সালে বরগুনার জেলার আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের আঙ্গুলকাটা গ্রামের বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের ওপরে স্থানীয় প্রভাবশালী একটি চক্র সরকারি নিয়ননীতির তোয়াক্কা না করে পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র ছাড়াই সিসা তৈরির অবৈধ কারখানা গড়ে তোলেন। ওই কারখানা থেকে নির্গত ক্ষতিকর ও বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ পরিবেশ ও জনস্বাস্থ্যের ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলছে। শুরুতে স্থানীয় জনসাধারণের সিসা কারখানা সম্পর্কে তেমন ধারণা ছিল না। বছর খানেক পরে ওই কারখানা সংলগ্ন এলাকার মানুষের মধ্যে শ্বাসকষ্ট ও হাঁপানির লক্ষণ ধরা পড়ে। কিন্তু এলাকার মানুষ সিসার বিষক্রিয়ার প্রভাবে এ রোগের সৃষ্টি হয়েছে তা বুঝতে পারেনি। গত বছর ডিসেম্বর মাসে ওই কারখানা সংলগ্ন এলাকার ১৫টি গরু হঠাৎ অসুস্থ হয়ে মারা যায়। এরপরে টনক নড়ে উপজেলা প্রাণিসম্পদ ও কৃষি বিভাগের। গত বছর ২৮ ডিসেম্বর আমতলী উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদফতর এ বিষয়টি মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউট পটুয়াখালী আঞ্চলিক কার্যালয়ে অবহিত করেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর