শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ নভেম্বর, ২০১৯ ২২:১৬

স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগ, ইউপি সদস্য আটক

নোয়াখালী প্রতিনিধি

স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগ, ইউপি সদস্য আটক
নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৬) বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে এক ইউপি সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। 
 
শনিবার দুপুর ভিকটিমকে মেডিকেল পরিক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। 
 
পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ৭ নভেম্বর বিপুলাসার উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্থানীয় ইউপি মেম্বার মোশারফ (৩৮) সিএনজিযোগে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে তাকে খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা থানা এলাকায় আসামির খালার বাড়িতে নিয়ে তিনদিন ধরে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। পরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মোশারফ মেম্বর চাষিরহাট নতুন বাজার এলে ওই ছাত্রীর ভাই ও এলাকার লোকজন উত্তম মধ্যম দিয়ে তাকে আটক করে রাখে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ এসে এলাকাবাসীর কাছ থেকে অপহরণকারী মোশারফ মেম্বরকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। 
 
সোনাইমুড়ী থানার ওসি আব্দুস সামাদ পিপিএম জানান, এ ঘটনায় সোনাইমুড়ী থানায় মামলা হয়েছে। ভিকটিমের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পরীক্ষা শেষে জবানবন্দি নেয়া হয়। পরে আসামিকে আদালতের মাধ্যমে শনিবার জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। 
 
বিডি-প্রতিদিন/মাহবুব
 
 

আপনার মন্তব্য