শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ জুলাই, ২০২১ ০০:২৫
প্রিন্ট করুন printer

হানিফের আরেক উদ্যোগ, প্রোটিনযুক্ত খাবার পাচ্ছে রোগীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

হানিফের আরেক উদ্যোগ, প্রোটিনযুক্ত খাবার পাচ্ছে রোগীরা
মাহাবুবউল আলম হানিফ
Google News

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফের উদ্যোগে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত রোগীদের প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার সরবরাহ করা হচ্ছে। 

এর আগে, একই হাসপাতালে ছাত্রলীগকে নির্দেশনা দিয়ে ৬৫ সদস্য বিশিষ্ট স্বেচ্ছাসেবক টিমের মাধ্যমে করোনায় মৃতদের লাশ দাফন, হাসপাতালে ডাক্তার-নার্সদের সার্বিক সহায়তা, বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ, মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ, অক্সিজেন সার্ভিসসহ নানামুখী উদ্যোগ বাস্তবায়িত হয়েছে সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফের সার্বিক সহযোগিতায়। 

সোমবার (২৬ জুলাই) থেকে কুষ্টিয়া হাসপাতালে করোনা ইউনিটে প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার সরবরাহ শুরু হয়। যা এখন থেকে এ হাসপাতালে চলমান থাকবে। সিদ্ধ ডিম, খেজুর, মাল্টা, কলাসহ প্রোটিন যুক্ত এ খাবার হাসপাতালে বিতরণ করছেন স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এ বিষয়ে স্বেচ্ছাসেবক টিমের নেতা ও কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ হাফিজ চ্যালেঞ্জ বলেন, কুষ্টিয়ার মাটি ও মানুষের নেতা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জননেতা মাহবুবউল আলম হানিফ ভাইয়ের উদ্যোগে এবার কুষ্টিয়া হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত রোগীদের প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার সরবরাহ করা হচ্ছে। আমরা নেতার এ উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। 

তিনি আরও বলেন, করোনায় এমনিতে মানুষের শরীর দুর্বল হয়ে যায়। কাজেই শরীর ঠিক রাখতে প্রোটিন সমৃদ্ধ এসব খাবার খুবই উপকারী। এসব খাবার পেয়ে মানুষ যে কি পরিমাণ খুশি হচ্ছে আমরা যারা সেখানে কাজ করছি কেবল তারাই সেটি উপলব্ধি করতে পারছি। 

তিনি বলেন, করোনার এ সঙ্কটকালে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে নানামুখী উদ্যোগ বাস্তবায়ন করায় নেতা মাহবুবউল আলম হানিফের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন এ অঞ্চলের মানুষ। সাধারণ মানুষ নেতার জন্য দোয়া করছেন। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবউল আলম হানিফ এমপি গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা যারা রাজনীতি করি, রাজনীতির মূলনীতি হচ্ছে জনগণের সেবা করা। সাধারণ মানুষ যখন অসুস্থ হয় বা দুর্যোগ বিপাকে পড়ে তখন তাদের পাশে দাঁড়িয়ে সহায়তা করা আমাদের রাজনীতির মূল কাজ। কুষ্টিয়া হাসপাতালে যা করা হয়েছে তা নৈতিক দায়িত্ববোধের জায়গা থেকে করা হয়েছে।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ আল সিফাত

এই বিভাগের আরও খবর