শিরোনাম
প্রকাশ : ৮ আগস্ট, ২০২১ ১৪:৩৯
প্রিন্ট করুন printer

গাছে বাঁধা দিনমজুরকে উদ্ধার করলো পুলিশ

নেত্রকোনা প্রতিনিধি

গাছে বাঁধা দিনমজুরকে উদ্ধার করলো পুলিশ
Google News

পাওনা টাকা উদ্ধারে শামছু মিয়া (৪৫) নামের এক দিনমজুরকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের খবর পেয়ে নেত্রকোনা মডেল থানার পুলিশ গিয়ে উদ্ধার করেছে। সেইসাথে শিকল দিয়ে অন্যায়ভাবে গাছে বেঁধে রাখার দায়ে পাওনাদার মো. হানিফ (৩০) ও তার ছোট ভাই মো. আল আমিনকে (২৭) আটক করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে রবিবার সকালে মডেল থানায় মামলা দিয়ে আটক দুজনকে কোর্টে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন মডেল থানার ওসি খন্দকার শাকের আহমেদ। শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে জেলার সদর উপজেলার চল্লিশা ইউনিয়নের ঝাউশি গ্রামে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বছর খানেক পূর্বে ঝাউশি গ্রামের মৃত আব্দুর রশিদের ছেলে হানিফ ও আল আমিন তাদেরই সম্পর্কে চাচাতো ভাই মুগবল হোসেনের ছেলে দিনমজুর শামছু মিয়াকে সুদে টাকা ধার দেন। পরবর্তীতে ২০ হাজার টাকা পাওনা হওয়ায় শনিবার রাতে শামছুকে আল আমিনের জুয়া বোর্ডের চেম্বারের সামনের একটি সুপারি গাছে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখে। এমন মধ্যযুগীয় নির্যাতনের ঘটনায় এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। শামছুকে ছাড়িয়ে দিতে চেষ্টা করেন স্থানীয়রা। কিন্তু ছাড়াতে না পারায় তারা বিষয়টি নেত্রকোনা মডেল থানায় অবগত করলে পুলিশ গিয়ে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি খন্দকার শাকের আহমেদ জানান, টাকা পায়, ভালো কথা। সেটির জন্য অভিযোগ করতে পারতো। কিন্তু তা না করে একজন মানুষকে রাতের আঁধারে এভাবে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা অত্যন্ত অন্যায়। আর এর জন্য আমরা সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা নিয়ে তাদের দুই ভাইকে কোর্টে পাঠিয়েছি।

এদিকে, স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, এই আল আমিন জুয়া বোর্ড চালিয়ে বিভিন্ন মানুষকে নিঃস্ব করে দিচ্ছে। তাদের কোনো অন্যায়ের বিরুদ্ধে কেউ কথা বলতে পারে না। তাই তারা যা খুশি তাই করে যায়। 

 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই বিভাগের আরও খবর