Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৮ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:২৬

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকুন

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

বুলবুল এক সুকণ্ঠী পাখির নাম। বুলবুলের নাম মনে এলেই প্রশান্তির ছোঁয়া অনুভূত হয়। তার পরও বুলবুল সম্পর্কে দেশের উপকূলভাগের লাখ লাখ মানুষ আতঙ্কের মধ্যে। বিশেষ করে সাগরে যারা মাছ ধরে জীবিকা অর্জন করেন তাদের জন্য বুলবুল ইতিমধ্যে মূর্তিমান আতঙ্ক হয়ে উঠেছে। মাছ ধরা বাদ দিয়ে তারা ট্রলার নিয়ে ছুটছেন নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য উপকূলভাগে। বুলবুল এক ঘূর্ণিঝড়ের নাম। বঙ্গোপসাগরে জন্ম নেওয়া এ ঘূর্ণিঝড়টি উত্তর-পশ্চিম উপকূলের দিকে এগিয়ে আসছে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। তাদের মতে, ঘূর্ণিঝড়টি রবিবার ভোরের আগেই বাংলাদেশের খুলনা-বরিশাল অঞ্চলের ওপর আঘাত হানতে পারে। তবে উপকূলে আঘাত হানার আগে কিছুটা দুর্বল হয়ে যেতে পারে। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে সাগর উত্তাল হয়ে উঠেছে। এজন্য দেশের তিনটি সমুদ্রবন্দর ও কক্সবাজারকে শুক্রবার ভোর ৬টা থেকে ৪ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত নৌযানগুলোকে চলাচল না করে নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে। আবহাওয়াবিদদের মতে, ঘূর্ণিঝড়টি উত্তর-পশ্চিম উপকূলের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এটি আরেকটু ডান দিকে ঘুরে খুলনা-বরিশাল উপকূলীয় অঞ্চলের ওপর শনিবার মধ্যরাতে আঘাত হানতে পারে। ঘূর্ণিঝড় বলয়ে বাতাসের গতিবেগ সর্বোচ্চ ১৪৪ কিলোমিটার পর্যন্ত উঠতে পারে। তবে উপকূলে চলে আসার আগে তা কিছুটা দুর্বল হয়ে ১০০ থেকে ১১০ কিলোমিটার পর্যন্ত থাকতে পারে। উল্লেখ্য, ঘূর্ণিঝড় সিডরের সময় বাতাসের গতিবেগ ছিল ২২৩ কিলোমিটার। বুলবুলের কারণে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলসহ বিভিন্ন এলাকা মেঘাচ্ছন্ন ও উপকূলীয় অঞ্চলে হালকা গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। উপকূলীয় অঞ্চলের ওপর দিয়ে ঝড়টি বয়ে যাওয়ার সময় বৃষ্টির মাত্রা আরও বাড়তে পারে। বুলবুল বাংলাদেশে ছোবল হানবে কিনা তা জানতে আরও কিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সাগর এতটাই উত্তাল হয়ে উঠেছে যে, জেলেদের অবস্থা এখন পালাই পালাই। কমবেশি একই ধরনের আতঙ্ক থাবা বিস্তার করছে উপকূলভাগের জনপদে। যেজন্য প্রশাসনকে সজাগ থাকতে হবে। উপকূলভাগের হাজার হাজার মানুষকে নিরাপদ আশ্রয় ও ত্রাণ তৎপরতার ব্যবস্থা নিতে হবে।


আপনার মন্তব্য