শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩১ জানুয়ারি, ২০২০ ২৩:৫০

ঢাকায় সিটি নির্বাচন

ভোট হোক সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ

ঢাকায় সিটি নির্বাচন

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন আজ। দুই সিটির ৫৪ লাখ ৬৩ হাজার ৪৬৭ জন ভোটার এ নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাবেন। নির্বাচিত করবেন মেয়র ও কাউন্সিলরদের। দুই সিটির মধ্যে উত্তরে ভোটার ৩০ লাখ ১০ হাজার ২৭৩ জন। এ সিটির মেয়র পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ছয়জন। ৫৪টি সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ২৫১ জন আর সংরক্ষিত (নারী) ১৮টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বী ৭৭ জন। ঢাকা দক্ষিণ সিটির ভোটার ২৪ লাখ ৫৩ হাজার ১৯৪ জন। মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন সাতজন। ৭৫টি সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ৩২৬ জন আর সংরক্ষিত (নারী) ২৫টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে দাঁড়িয়েছেন ৮২ জন। এর মধ্যে সাধারণ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে চারজন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হওয়ার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন। ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট হবে ইভিএমে। নির্বাচনে মোট ২ হাজার ৪৬৮টির মধ্যে ১ হাজার ৫৯৭টি অর্থাৎ ৬৪ দশমিক ৭১ শতাংশ কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ। এসব কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় অতিরিক্ত ফোর্স নিয়োগ করবে নির্বাচন কমিশন। ঢাকার দুই সিটির ২ হাজার ৪৬৮টি কেন্দ্রের মধ্যে উত্তরে ৮৭৬ ও দক্ষিণে ৭২১টি ঝুঁকিতে রয়েছে। এ নির্বাচনে নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ৪২ হাজার ৮৭০ জন সদস্য। ভোটের আগে দুই দিনের পর আজ ভোটের দিন এবং ভোটের পর আগামীকাল- মোট চার দিন মাঠে থাকছেন তারা। এ ছাড়া মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে নির্বাচনী মাঠে থাকবেন বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশ সদস্যরা। বিজিবির টহল টিমের সঙ্গে থাকবেন একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটও। ঢাকার দুই সিটির ভোটার ও ভোট কেন্দ্রের নিরাপত্তা দিতে আজ সকাল থেকেই মাঠে থাকছে বিজিবি। নির্বাচনে বহিরাগতদের কেন্দ্রে না যাওয়ার জন্য সতর্ক

করা হয়েছে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে। শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখতে নেওয়া হয়েছে এ উদ্যোগ। ইতিমধ্যে সরকারের পক্ষ থেকে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে সুষ্ঠু নির্বাচনই দেখতে চান তারা। তাদের এ প্রতিশ্রুতি বাস্তবেও প্রতিফলিত হবে- এমনটিই প্রত্যাশিত।


আপনার মন্তব্য