শিরোনাম
প্রকাশ : ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২০:০৬
আপডেট : ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২১:০২

২৪ বছর নামমাত্র মূল্যে সেচ!

মহিউদ্দিন মোল্লা, কুমিল্লা:

২৪ বছর নামমাত্র মূল্যে সেচ!

কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার ইলিয়টগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়ন। এখানের কয়েকটি গ্রামে ২৪ বছর ধরে ১৫০ বিঘা জমিতে নামমাত্র মূল্যে বোরো ধানের জমিতে সেচ দেওয়া হচ্ছে। 

আদমপুর গ্রামের বাসিন্দা মতিন সৈকত এই সেচের উদ্যোক্তা। তেলের দাম বাড়ে। বিদ্যুতের দাম বাড়ে। তবে তার সেচের মূল্য বাড়েনি ২৪ বছরেও।

স্থানীয় সূত্র জানায়, অন্যত্র প্রতি বিঘা জমিতে প্রতি মৌসুমে সেচ দিতে দুই হাজার টাকা থেকে বাইশশ’ টাকা ব্যয় করতে হয়। এদিকে এখানে বিঘা প্রতি মাত্র দুইশ’ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে যা বিদ্যুতের দামের সমান। 

এই সেচের উদ্যোক্তা মতিন সৈকত এলাকার একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রভাষক। শিক্ষকতার পরে জমিতে সেচ, মাছ চাষ, বিষমুক্ত ফসলের ফলানোর পরামর্শে সময় কাটে তার। 

ভুর্তুকি দিয়ে স্বল্প মূল্যে সেচসহ অন্যান্য কাজগুলোর বিষয়ে মতিন সৈকত বলেন, ‘আমি কৃষকের সন্তান। কৃষিকে এগিয়ে দিতে এই চেষ্টা করছি।’ 

স্থানীয় সাংস্কৃতিক সংগঠক এসএম মিজানুর রহমান পাপ্পু বলেন, ‘মতিন সৈকতের কাজকে কেউ কেউ ঘরের খেয়ে বনের মোষ তাড়ানো বলে মনে করেন। তবে কৃষি নিয়ে তার এসব উদ্যোগে এলাকার মানুষ অনেক উপকার পেয়েছে।’

দাউদকান্দি উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো.সারোয়ার জামান জানান, ‘মতিন সৈকত কৃষি নিয়ে কাজ করায় শিক্ষিত তরুণরা কৃষিতে ঝুঁকছে। স্বল্প মূল্যে সেচ কৃষকদের বোরো চাষে উদ্বুদ্ধ করছে।’


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য