Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:৪৫

সন্ত্রাস ও মাদকের মতো দুর্নীতিতেও জিরো টলারেন্স : প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

সন্ত্রাস ও মাদকের মতো দুর্নীতিতেও জিরো টলারেন্স : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সন্ত্রাস, মাদক ও জঙ্গিবাদের মতো দুর্নীতির বিরুদ্ধেও আমাদের ‘জিরো টলারেন্স’ অবস্থান। জনপ্রশাসনে দুর্নীতি হলেই সঙ্গে সঙ্গে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। নতুন সরকারের দায়িত্ব গ্রহণের ১০ দিনের মাথায় গতকাল সচিবালয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে এসে শেখ হাসিনা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ নির্দেশ দেন। এ সময় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এবং সচিব ফয়েজ আহম্মেদসহ মন্ত্রণালয়ে বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সুনির্দিষ্ট একটা নির্দেশনা দিতে হবে, একেবারে তৃণমূল পর্যন্ত কেউ দুর্নীতি করলে সঙ্গে সঙ্গে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। যে লক্ষ্য আমরা নিয়েছি তা পূরণ করতে পারব। এর জন্য সুশাসন ও দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়ে তোলা দরকার।’ তিনি বলেন, ‘আমরা বেতন-ভাতা, সুযোগ-সুবিধা এত বেশি বৃদ্ধি করে দিয়েছি, সে ক্ষেত্রে আমি তো মনে করি আমাদের দুর্নীতির কোনো প্রয়োজনই নেই।’ শেখ হাসিনা বলেন, ‘যা প্রয়োজন তার সব তো আমরা মেটাচ্ছি। তাহলে দুর্নীতি কেন হবে? কাজেই এখানে মানুষের মনমানসিকতা পরিবর্তন করতে হবে।’ তিনি জনপ্রশাসনের কর্মকর্তাদের সততা ও আন্তরিকতা নিয়ে জনসেবা করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্র পরিচালনার হার্ট (প্রাণ) জনপ্রশাসন। আপনাদের সেভাবে কাজ করতে হবে। আন্তরিকতা নিয়ে কাজ করবেন।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, জনপ্রশাসনসহ সব ক্ষেত্রে পদোন্নতি শুধু জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে নয়, এখানে দক্ষতাটাকে প্রাধান্য দিতে হবে। কে কত বেশি কাজ করতে পারে, কতটা সততার সঙ্গে কাজ করতে পারে এবং নিয়ম-শৃঙ্খলা মেনে চলে- এসব বিবেচনা করে পদোন্নতি হওয়া উচিত। ২০০৯ সালে সরকার গঠনের পর মন্ত্রণালয়গুলোর কাজের গতি বাড়াতে এবং স্বচ্ছতা আনতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় পরিদর্শন শুরু করেন। মধ্যে কয়েক বছর বিরতির পর এই মেয়াদে এসে সরকার গঠন করে আবারও বিভিন্ন মন্ত্রণালয় পরিদর্শন শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী। এরই অংশ হিসেবে গতকাল তিনি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন কাজের খোঁজখবর নেন। তিনি ভবিষ্যৎ কর্মকান্ড নিয়ে নির্দেশনা দেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর