Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১ জুন, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩১ মে, ২০১৯ ২৩:৪৮

বন্দুকযুদ্ধে নিহত টেকনাফে ইয়াবা গডফাদার সিআইপি সাইফুল

বিজিবির গুলিতে মাদক ব্যবসায়ী নিহত

প্রতিদিন ডেস্ক

বন্দুকযুদ্ধে নিহত টেকনাফে ইয়াবা গডফাদার সিআইপি সাইফুল

কক্সবাজারের টেকনাফে গ্রেফতারের পর পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক কারবারি সাইফুল করিম নিহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে লক্ষাধিক  ইয়াবা, ৯টি এলজি, ৪২ রাউন্ড শর্টগানের তাজা কার্তুজ ও ৩৩ রাউন্ড খালি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, গতকাল গভীররাতে টেকনাফ স্থলবন্দর সংলগ্ন নাফনদের পাড়ে এই বন্দুকযুদ্ধের  ঘটনা ঘটে। নিহত মাদক কারবারি সাইফুল করিম (৪৫) টেকনাফ সদর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের শীলবনিয়া পাড়া এলাকার ডা. হানিফের ছেলে। তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার তালিকাভুক্ত চিহ্নিত মাদক কারবারি ও একাধিক  মামলার পলাতক আসামি।

টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ   (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, গ্রেফতার হওয়া সাইফুল করিম ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, কয়েকদিন আগে তিনি মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান ইঞ্জিনচালিত বোটযোগে এনে স্থলবন্দর সংলগ্ন সীমানা প্রাচীরের শেষ প্রান্তে নাফনদের পাড়ে মজুদ করেছেন। এ তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ তাকে নিয়ে সেখানে ইয়াবা উদ্ধারের জন্য গেলে তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে থাকে। এতে এসআই রাসেল আহমেদ, কনস্টেবল মো. ইমাম হোসেন ও সোলাইমান আহত হন। তখন পুলিশ ৫২ রাউন্ড পাল্টা গুলি চালায়। একপর্যায়ে গ্রেফতারকৃত সাইফুল করিম গুলিবিদ্ধ হন এবং অন্য মাদক কারবারিরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে ব্যাপক তল্লাশি করে আসামিদের বিক্ষিপ্তভাবে ফেলে যাওয়া লক্ষাধিক ইয়াবা, ৯টি এলজি, ৪২ রাউন্ড শটগানের তাজা কার্তুজ ও ৩৩ রাউন্ড খালি খোসা জব্দ করা হয়। এদিকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে সাইফুল করিম মারা যান। বিজিবির গুলিতে মাদক ব্যবসায়ী নিহত : দিনাজপুর প্রতিনিধি জানান, হাকিমপুরের হিলি সীমান্ত এলাকায় বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দেলোয়ার হোসেন নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এ সময় ৯৫৮ পিস ইয়াবা, ৫০০ বোতল ফেনসিডিল এবং ৩টি হাঁসুয়া উদ্ধার করা হয়েছে। বিজিবি জানায়, নিহত দেলোয়ার হোসেন হাকিমপুর উপজেলার হিলি সীমান্তের নন্দিপুর এলাকার মৃত আবদুর রহমানের ছেলে। হাকিমপুরের হিলির মংলা বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার নায়েক সুবেদার আবু সাঈদ জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে সীমান্ত দিয়ে চোরাইপথে ভারত থেকে দেশে প্রবেশের সময় দেলোয়ার হোসেনকে ৯৫৮ পিস ইয়াবাসহ আটক করে বিজিবি। পরে তাকে নিয়ে বিজিবির সদস্যরা রাত ২টার দিকে হিলি সীমান্তবর্তী চেংগ্রাম এলাকায় মাদক উদ্ধারে গেলে দেলোয়ারের সহযোগীরা বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এ সময় বিজিবিও পাল্টা গুলি চালালে দেলোয়ার হোসেনের মৃত্যু হয়। গোলাগুলির সময় বিজিবির তিন সদস্যও আহত হয়েছেন। হাকিমপুর থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, এ ঘটনায় বিজিবি বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর