Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০১

এবার চাকরি খুঁজে দেবে গুগল!

ইনফোটেক ডেস্ক

এবার চাকরি খুঁজে দেবে গুগল!

বাংলাদেশে চাকরি প্রার্থীদের চাকরির সন্ধান দিতে নতুন একটি ফিচার এনেছে সার্চ জায়ান্ট গুগল। বাংলাদেশ ছাড়াও ফিচারটি পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার চাকরি প্রার্থীদের জন্য এই নতুন ফিচার আনল প্রতিষ্ঠানটি। চাকরির সন্ধানদাতা ওয়েবসাইট, অনলাইনে পাওয়া তালিকা ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে তথ্য নিয়ে এ ফিচার তৈরি করা হয়েছে। গুগলের এই ঠিকানায় বিভিন্ন চাকরিদাতা কোম্পানিগুলোর তথ্য একত্রে পাওয়া যাবে। উন্মোচনের শুরুতেই হাজারো সাইটের চাকরির তথ্য দেখাবে গুগল। ফিচারটিতে পার্টটাইম জব, সফটওয়্যার ডেভেলপার জব, কনস্ট্রাকশন জবস কিংবা এ ধরনের যে কোনো ক্যাটাগরির চাকরি খোঁজার সুবিধা থাকবে। গুগলের লিস্টে থাকা যে কোনো একটি চাকরির ওপর ক্লিক করলেই সংক্ষিপ্ত আকারে বিভিন্ন তথ্য যেমন-জব টাইটেল, লোকেশন, ফুলটাইম বা পার্টটাইম ও অন্যান্য আরও তথ্য দেখানো হবে। এর পাশাপাশি জরুরি ওয়েব লিংক, মতামত, রেটিং, চাকরির প্রকৃত উৎস এমনকি চাকরিপ্রার্থীর বাসা থেকে কর্মস্থলের যোগাযোগ ব্যবস্থাও দেখাবে গুগল। একেকজনের একক চাহিদা অনুযায়ী অসংখ্য টুল ব্যবহার করেছে গুগল।

স্মার্ট ফিল্টারে চাকরির ধরন, লোকেশন, নিয়োগের তারিখ, চাকরিদাতা প্রতিষ্ঠানের ধরন উল্লেখ করে নিজের মতো করে সার্চ ফিচারটি সেট করা যাবে। সার্চের ফলাফল থেকে প্রাপ্ত তালিকা অনলাইনে বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে আদান-প্রদানের সুযোগও রাখা হয়েছে। এছাড়াও সেট করা সার্চ ফিচার ব্যবহারকারীকে তার উপযুক্ত চাকরির বিষয়ে নোটিফিকেশন অ্যালার্ট দিতেও সক্ষম। নতুন সার্চ ফিচারটি ইংরেজি ভাষায় অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস প্ল্যাটফর্মে গুগল অ্যাপসহ ডেস্কটপ ও মোবাইলের গুগল সার্চ অপশনে ব্যবহার করা যাবে। অন্যদিকে, ভূমিকম্পের পরবর্তী ‘আফটারশক’র পূর্বাভাস পেতেও এখন সাহায্য করবে গুগলের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। আর এ কাজে গুগলের প্রযুক্তিবিদদের সাহায্য করবেন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈজ্ঞানিকরা। বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, ভূমিকম্প সাধারণত কয়েকটি স্তরে ঘটে। একটি মূল কম্পনের পরে আসে কয়েকটি ‘আফটারশক’। সবচেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতি মূল কম্পনের সময়ে ঘটলেও আফটারশকে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণটা নেহাত কম হয় না। মূল কম্পনের পূর্বাভাস পাওয়া না গেলেও কীভাবে আফটারশক থেকে জনতাকে সাবধান করা যায়, সেটা নিয়েই গুগলের সঙ্গে একযোগে গবেষণা করছিলেন হার্ভার্ডের বিজ্ঞানীদের একটি দল।


আপনার মন্তব্য