শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৫:১৫

'রীতি ভেঙে' ধুতি-শাড়ি পরে নোবেল পুরস্কার গ্রহণ অভিজিৎ-এস্থার দম্পতির

অনলাইন ডেস্ক

'রীতি ভেঙে' ধুতি-শাড়ি পরে নোবেল পুরস্কার গ্রহণ অভিজিৎ-এস্থার দম্পতির

নোবেল পুরস্কার গ্রহণের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট পোশাকবিধি রয়েছে- পরনে 'সাদা জামা ও কালো স্যুট'। কিন্তু, মাদার তেরেসার পর এবার সেই রীতি ভাঙলেন ২০১৯ সালে অর্থনীতিতে নোবেলজয়ী দম্পতি অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় ও এস্থার ডুফলো। সাদা জামা কিংবা কালো স্যুট নয়, ধুতি-শাড়িতে নোবেল গ্রহণ করলেন তারা। আর এভাবে নোবেল কমিটির কাছ থেকে বিশেষ অনুমতি নিয়ে বিশ্বমঞ্চে বাঙালির ঐহিত্যকে তুলে ধরলেন এই দম্পতি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবর, অর্থনীতিতে দারিদ্র্য দূরীকরণে অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় ও এস্থার ডুফলোর তত্ত্ব অভিনব। নোবেল পুরস্কার মঞ্চেও দম্পতিকে দেখা গেল একেবারে অন্যরূপে। ঐতিহ্যপূর্ণ বাঙালি সাজে সুইডেনের রাজার কাছ থেকে নোবেল পদক গ্রহণ করলেন তারা। 

নোবেল পুরস্কারের প্রাপকের নাম আগেই ঘোষণা করা হলেও আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কার প্রদান করা ১০ ডিসেম্বর। আলফ্রেড নোবেলের মৃত্যুর দিনে এই পুরস্কার দিয়ে থাকেন সুইডেনের রাজা। 

বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টায় আসে সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। মঞ্চে তখন হাজার নক্ষত্রের আলো। নোবেল কমিটি নাম ঘোষণা করল অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়, এস্থার ডুফলো ও মাইকেল ক্রেমারের। প্রথমে পুরস্কার গ্রহণ করেন অভিজিৎ। বাঙালি এই কৃতি সন্তানের পরনে তখন হলুদ পাড়ের সাদা ধুতি-পাঞ্জাবি, সঙ্গে কালো কোট। বাঙালি সাজে নীল শাড়ি পরে নোবেল পুরস্কার মঞ্চে আসেন অভিজিতের স্ত্রী এস্থার ডুফলো। সবশেষে পুরস্কার গ্রহণ করেন আরেক নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ মাইকেল ক্রেমার।

বিডি-প্রতিদিন/মাহবুব


আপনার মন্তব্য

close