শিরোনাম
প্রকাশ : ৫ এপ্রিল, ২০২১ ১২:১৮
প্রিন্ট করুন printer

প্রিন্স হামজার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহী ষড়যন্ত্রের অভিযোগ

অনলাইন ডেস্ক

প্রিন্স হামজার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহী ষড়যন্ত্রের অভিযোগ
প্রিন্স হামজা

জর্ডানের প্রিন্স হামজার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহী ষড়যন্ত্রের অভিযোগ এনেছেন তারই সৎ ভাই জর্ডানের উপ-প্রধানমন্ত্রী আয়মান সাফাদি বাদশাহ দ্বিতীয় আব্দুল্লাহ। অভিযোগে বলা হয়, সাবেক প্রিন্স হামজা দেশকে অস্থিতিশীল এবং সরকার চ্যুত করতে বিদেশিদের সঙ্গে চক্রান্ত করেছেন।

জর্ডানের উপ-প্রধানমন্ত্রী আয়মান সাফাদি বলেন, 'দেশকে অস্থিতিশীল করার বিদেশি পার্টির হস্তক্ষেপ এবং তাদের সঙ্গে যোগাযোগ সঠিক সময়ে নজরদারি করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। এ ষড়যন্ত্র সরাসরি দেশের নিরাপত্তা এবং স্থিতিশীলতায় প্রভাব ফেলছে।' 

তিনি আরও বলেন, 'ষড়যন্ত্রে যারা জড়িত দেশের নিরাপত্তা আদালতে তাদের তথ্য উপস্থাপন করতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে বলা হবে।' এখন পর্যন্ত ১৪-১৬ জনকে আটক করা হয়েছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও সরাসরি প্রিন্স হামজার সঙ্গে আলোচনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

একটি বিদেশি গোয়েন্দা সংস্থা প্রিন্স হামজার স্ত্রীর সঙ্গে তাদের জর্ডান পালিয়ে যাবার বিষয়ে যোগাযোগ করে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

অন্যদিকে, রবিবার (৪ এপ্রিল) জর্ডানের সেনাবাহিনী দেশের নিরাপত্তার বিষয়ে সতর্ক করেন। পরে এক ভিডিও বার্তায় প্রিন্স হামজা অভিযোগ করেন, তাকে ও তার কয়েকজন ঘনিষ্ঠ সহযোগিকে গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছে।

তবে প্রিন্স হামজার মা ‘রানী নুর’ তার ছেলে হামজার পক্ষে কথা বলেন। এক টুইট বার্তায় তিনি-দুষ্টু কলঙ্ক দূর করে সত্য এবং ন্যায় উদ্ভাসিত হবে, সকল নিদোর্ষ এবং ভুক্তভোগী মুক্তি পাবে বলে প্রার্থনা করেন।

উল্লেখ্য, জর্ডানের প্রতিবেশি দেশসমূহ এবং মিত্রদেশ যুক্তরাষ্ট্র বাদশাহ দ্বিতীয় আব্দুল্লাহর প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। মধ্যপ্রাচ্যে জর্ডানকে সবথেকে স্থিতিশীল দেশ হিসেবে মনে করা হয়।

 

বিডি প্রতিদিন/ অন্তরা কবির

এই বিভাগের আরও খবর