Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper

শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৩৭

ভেনেজুয়েলায় সামরিক হস্তক্ষেপের কথা ভাবছেন ট্রাম্প

ভেনেজুয়েলায় সামরিক হস্তক্ষেপের কথা ভাবছেন ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ভেনেজুয়েলার বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিকল্প সব উপায় নিয়ে ভাবছেন তিনি। এর মধ্যে সামরিক হস্তক্ষেপ বা হামলার বিষয়ও রয়েছে। বুধবার হোয়াইট হাউসে কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভান দুকু মারকোয়েজের সঙ্গে বৈঠকের পর এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন ট্রাম্প।

গত বছর অনুষ্ঠিত দেশটির জাতীয় নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ রয়েছে। এজন্য বিরোধী দল ব্যাপক আন্দোলন শুরু করে। এ অবস্থায় দেশটির বিরোধীদলীয় নেতা ও স্পিকার হুয়ান গুইদো ২৩ জানুয়ারি নিজেকে ভেনেজুয়েলার অন্তর্র্বর্তী প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করেন। মূলত বিরোধী নিয়ন্ত্রিত জাতীয় পরিষদ মাদুরোকে দ্বিতীয় মেয়াদে ‘অবৈধ ঘোষণা’র পরই ওই পদক্ষেপ নেন তিনি। গুইদোর দাবি, প্রেসিডেন্ট অবৈধ ঘোষিত হওয়ার পর জাতীয় পরিষদপ্রধান হিসেবে সাময়িকভাবে দায়িত্ব গ্রহণের সাংবিধানিক এখতিয়ার তার আছে। কয়েক মিনিটের মাথায় তাকে ‘স্বীকৃতি’ দেয় যুক্তরাষ্ট্র। কানাডা, লাতিন আমেরিকার বেশির ভাগ দেশ ও ২০টির বেশি ইউরোপীয় দেশ যুক্তরাষ্ট্রকে অনুসরণ করেছে। তবে দুই শক্তিধর দেশ রাশিয়া ও চীনের সমর্থন রয়েছে মাদুরোর প্রতি। সেনাবাহিনী ও রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানগুলোরও সমর্থন পেয়েছেন তিনি। দুই দিন আগে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ­াদিমির পুতিন জানিয়েছেন তিনি ভেনেজুয়েলার রাজনৈতিক সংকট কাটাতে মধ্যস্থতায় রাজি। একই সঙ্গে তিনি আমেরিকাকে হুঁশিয়ারি দেন যেন অযাচিতভাবে দেশটিতে হস্তক্ষেপ না করে। বুধবার হোয়াইট হাউসে কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভান দুকু মারকোয়েজের সঙ্গে বৈঠক করেন ট্রাম্প। বৈঠকে ভেনেজুয়েলার বিষয়েও আলোচনা হয়। পরে সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বলেন, ‘আমি মনে করি সংকট সমাধানের কয়েকটি পথ আছে, ভিন্ন ভিন্ন পথ সেগুলো এবং আমরা সবই বিবেচনায় রাখছি।’ যুক্তরাষ্ট্র ভেনেজুয়েলায় সামরিক হস্তক্ষেপ চালানোর কথা ভাবছে কিনাÑ এমন প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প বলেন, ‘আমি কখনই এ প্রসঙ্গে কিছু বলিনি।’ ট্রাম্পের এ বক্তব্যকে পূর্ববর্তী বক্তব্যের সঙ্গে সাংঘর্ষিক বলে উল্লেখ করেছে আনাদোলু এজেন্সি। এর আগে সিবিএস নিউজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘লাতিন আমেরিকার ওই দেশটির সংকট সমাধানের ক্ষেত্রে সামরিক হস্তক্ষেপের বিষয়টিও বিবেচনায় আছে।’

দীর্ঘমেয়াদি অর্থনৈতিক যুদ্ধের কবলে পড়ে খাদের কিনারে এসে দাঁড়িয়েছে ভেনেজুয়েলার অর্থনীতি। মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়ে বছরে হাজার হাজার কোটি ডলার ক্ষতি হয়েছে তাদের।

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন চাইলেন মাদুরো : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ভেনেজুয়েলার পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো। বুধবার রাজধানী কারাকাসে প্রেসিপ্রণশিয়াল প্যালেসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ আহ্বান জানান।

ভ্যাটিকানের মধ্যস্থতার পর্যায়ে নেইÑ পোপ : ভেনেজুয়েলা সংকট এখন ভ্যাটিকানের মধ্যস্থতার পর্যায়ে নেই বলে মন্তব্য করেছেন ক্যাথলিক ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস। বুধবার দেশটির প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে লেখা এক চিঠিতে এ কথা বলেন পোপ। চলমান রাজনৈতিক সংকট থেকে উত্তরণে ক্যাথলিক ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিসের শরণাপন্ন হন মাদুরো। এ ব্যাপারে সাহায্য চেয়ে পোপের কাছে একটি চিঠিও পাঠান তিনি। জবাবে পোপ বলেন, সবকিছুর আগে ভেনেজুয়েলার সাধারণ মানুষের কথা ভাবা উচিত।

তিনি বলেন, ‘সংঘাতে সংশ্লিষ্ট সব দলকেই শান্তি ও ঐক্যের পথ খুঁজতে হবে।’ ভেনেজুয়েলার ক্যাথলিক বিশপরাও সেখানে শান্তিপূর্ণ ও কাঠামোবদ্ধ সমাধান খুঁজছেন বলেও জানান তিনি।


আপনার মন্তব্য