শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ নভেম্বর, ২০১৯ ২৩:১৪

প্রশাসনের লোক পরিচয়ে যুবলীগ নেতাকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রশাসনের লোক পরিচয়ে যুবলীগ নেতাকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

আওয়ামী যুবলীগের উপত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম চৌধুরীকে রাজধানীর বনশ্রীর বাসা থেকে সাদা পোশাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বেলা সাড়ে ১১টায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় বাসায় ছিলেন তার স্ত্রী খাদিজা খাতুন। তিনি বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ‘পাঁচজন লোক পাঁচ তলার ফ্ল্যাটে এসে নিজেদের প্রশাসনের লোক বলে পরিচয় দেন। তারা রফিকের সঙ্গে কথা বলবেন আর চা খাবেন বলে বাইরে নিয়ে যেতে চান। এতে বাধা দিয়ে বলি, যা কথা আছে বাসার ভিতরেই বলুন। বাইরে একা ওকে ছাড়ব না। এ সময় প্রশাসনের লোক পরিচয়ধারীদের একজন ধমক দিয়ে বলেন, আপনি বেশি কথা বলছেন। এতে আপনার স্বামীর ক্ষতি হতে পারে। আমরা নিয়ে যাচ্ছি, পরে চলে আসবে। এরপর তারা রফিককে জোর করে বাসা থেকে নিয়ে যান। বাসার সামনে পার্ক করে রাখা একটি সাদা রঙের মাইক্রোবাসে উঠিয়ে নিয়ে যান তারা। এর পর থেকে রফিকের মোবাইল ফোন বন্ধ আছে।’ থানা পুলিশে যোগাযোগ করেও তারা রফিকের অবস্থান জানতে পারেননি। প্রশাসনের লোক পরিচয়ধারী কারও কাছে অস্ত্র বা ওয়াকিটকি ছিল কিনা তা খেয়াল করেননি বলে জানান খাদিজা। রফিকের রাজনৈতিক সহকর্মী যুবলীগ উত্তরের সদস্য খালেদ মাহমুদ বেণু বলেন, ‘মাইক্রোবাসের নম্বর যা ছিল, তা চেক করে দেখেছি। নম্বর প্লেটটি পিকআপ ভ্যানের। কিন্তু তারা এসেছিল মাইক্রোবাসে।’ রফিক এবার যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী বলে জানান বেণু।


আপনার মন্তব্য

close