শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ অক্টোবর, ২০২০ ২৩:৫৭

ফের রেকর্ড গতিতে করোনার সংক্রমণ

প্রতিদিন ডেস্ক

দ্বিতীয় দফায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বিভিন্ন দেশে নতুন করে রেকর্ড গড়তে শুরু করেছে। ইউরোপে এরই মধ্যে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ভাইরাস। রবিবার সংক্রমণে রেকর্ড গতি লক্ষ্য করা গেছে যুক্তরাষ্ট্র, ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, মালয়েশিয়া এবং ইতালিতে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের হিসাব অনুযায়ী, গতকাল সকাল পর্যন্ত বিশ্বে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা হয় ৪ কোটি ৩ লাখ ৩৮ হাজার এবং মৃত্যুর সংখ্যা হয় ১১ লাখ ১৯ হাজার। এখন প্রতিদিন গড়ে বিশ্বে সংক্রমিত হচ্ছেন সোয়া ৩ লাখ মানুষ এবং মৃত্যু হচ্ছে প্রায় ৪ হাজার করে। গত রবিবার ২৪ ঘণ্টায় ইউরোপে নতুন সংক্রমিত ছিল ১ লাখ ৩৬ হাজার এবং মৃত্যু ছিল প্রায় ৯০০। এদিন উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকায় সংক্রমিত ছিল প্রায় ৯১ হাজার এবং মৃত্যু ছিল দেড় হাজারের বেশি। এশিয়ায় এদিন সংক্রমিত ছিল প্রায় ৯১ হাজার এবং মৃত্যু ছিল ১ হাজার ৩৩৮। আফ্রিকায় এদিন সংক্রমিত ছিল ৮ হাজার ২ শতাধিক এবং মৃত্যু ছিল ১৮৫। যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে অর্ধলক্ষ শনাক্ত : যুক্তরাষ্ট্রে রবিবার একদিনেই নতুন করে প্রায় অর্ধলাখ মানুষের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। জন্স হপকিন্স ইউনিভার্সিটির গবেষকরা জানিয়েছেন, এদিন দেশটিতে নতুন করে আরও ৪৮ হাজার ২১০ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। একই সময়ে এ ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ৩৮৮ জনের। আমেরিকার দুই মহাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ায় সংক্রমণ দ্রুত বাড়ছে।

পশ্চিমবঙ্গে একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণ : করোনা এখনো পিছু ছাড়ছে না ভারতের কলকাতাসহ পশ্চিমবঙ্গবাসীকে। দিন দিন বাড়ছে সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা। এরই মধ্যে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের অশনিসংকেত, আসছে দুর্গাপূজায় বাড়তে পারে করোনার সংক্রমণ। ১৪ দিন ধরে পশ্চিমবঙ্গে ফের বাড়তে শুরু করেছে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা। রবিবার সন্ধ্যায় রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর থেকে ঘোষিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে বলা হয়, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় কলকাতাসহ এই রাজ্যে করোনায় সংক্রমিত হয়েছে ৩ হাজার ৯৮২ জন, যা এই করোনা মৌসুমে এ রাজ্যে সর্বাধিক সংক্রমিত সংখ্যা। শনিবার এই সংখ্যা ছিল ৩ হাজার ৮৬৫ জন। এ নিয়ে এই রাজ্যে করোনায় সর্বমোট সংক্রমিত হয়েছে ৩ লাখ ২১ হাজার ৩৬ জন।

মালয়েশিয়ায় একদিনে নতুন রেকর্ড : মালয়েশিয়ায় রবিবার একদিনে করোনাভাইরাস সংক্রমণের নতুন  রেকর্ড তৈরি হয়েছে। এদিন দেশটিতে নতুন করে আরও ৮৭১ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। দেশটিতে করোনার প্রাদুর্ভাব শুরুর পর এটিই একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের ঘটনা। মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম  বেরনামার বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

যুক্তরাষ্ট্রের জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের তথ্য অনুযায়ী, মালয়েশিয়ায় এখন পর্যন্ত মোট ২০ হাজার ৪৯৮ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক ড. নূর হিশাম জানিয়েছেন, করোনার প্রাদুর্ভাব সবচেয়ে বেশি দেখা গেছে উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় সবাহ রাজ্যে। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় গত মঙ্গলবার থেকে রাজধানী কুয়ালালামপুর ও সাবাহ রাজ্যসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। এর আওতায় লোকজনের চলাচল নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বিয়ে ও খেলাধুলার অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বিনা প্রয়োজনে নিজ জেলার বাইরে যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

ইতালিতে ফের বিধিনিষেধ : করোনা মোকাবিলায় ইতালিতে নতুন করে বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে। টানা পাঁচ দিন ধরে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় গত রবিবার প্রধানমন্ত্রী গুইসেপ কন্টে নতুন পদক্ষেপের  ঘোষণা দেন। নতুন নিয়মে রেস্টুরেন্টগুলোতে প্রতি  টেবিলে মাত্র ৬ জনকে খাবার পরিবেশন করার অনুমতি  দেওয়া হবে। জুয়া খেলা হয় এমন স্থানগুলো রাত ৯টার মধ্যে বন্ধ করে দিতে হবে। এছাড়া সব ধরনের স্থানীয় উৎসব উদযাপন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বিভিন্ন শহরের  মেয়রদের রাত ৯টার পর পাবলিক প্লেসগুলোতে কারফিউ জারির ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। জিম ও সুইমিং পুলগুলো অবশ্য খোলা থাকার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে প্রধানমন্ত্রী গুইসেপ কন্টে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, আগামী সপ্তাহের মধ্যে সুরক্ষা ব্যবস্থাগুলো অনুসরণে ব্যর্থ হলে সেগুলোও বন্ধ করে দেওয়া হবে।

গুইসেপ কন্টে বলেন, আরেকটি লকডাউন এড়াতেই বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে। কেননা দেশের অর্থনৈতিক কাঠামোর সঙ্গে আপস করে আরও একটি লকডাউনের মুখোমুখি হওয়ার মতো অবস্থা ইতালির  নেই।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর