শিরোনাম
সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ০০:০০ টা
অষ্টম কলাম

সালাম না দেওয়ায় মারধর

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর

ছাত্রলীগের যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি) শাখার সভাপতির সামনে লুঙ্গি পরে চলাফেরা ও সালাম না দেওয়ায় এক শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী হলের প্রভোস্ট বরাবর লিখিত অভিযোগ এবং যশোর কোতোয়ালি থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন। শুক্রবার মধ্যরাতে যবিপ্রবির শহীদ মসীয়ূর রহমান হলের ৩০৮ নম্বর কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার মো. মাঞ্জুরুল হাসান যবিপ্রবির ফিশারিজ অ্যান্ড মেরিন বায়োসায়েন্স বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। নির্যাতনের পর তিনি যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। লিখিত অভিযোগে মাঞ্জুরুল হাসান উল্লেখ করেছেন, শুক্রবার রাতে হলের কক্ষ থেকে বের হলে ছাত্রলীগ সভাপতি সোহেল রানার সঙ্গে দেখা হয়। সে সময় তাকে সালাম না দেওয়া ও লুঙ্গি পরে তার সামনে চলাচলের অভিযোগে ৩০৮ নম্বর কক্ষে ডেকে নিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করা হয়।

 তবে যবিপ্রবি ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানা মারধর করার কথা অস্বীকার করে বলেছেন, ‘রাতে কিছু ছেলে জুনিয়রদের সঙ্গে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে তাদের বুঝিয়ে যার যার কক্ষে যেতে বলা হয়। কাউকে মারধর করা হয়নি। যারা বিশৃঙ্খলা করছিল তারা ছাত্রলীগের কোনো পদে নেই। ক্যাম্পাস রাজনীতির গ্রুপিংয়ের বলি হিসেবে আমাকে দোষারোপ করা হচ্ছে’। এ বিষয়ে শহীদ মসীয়ূর রহমান হলের প্রভোস্ট ড. মো. তানভীর ইসলাম বলেন, ‘মারামারির ঘটনা শুনে সহকারী প্রভোস্টদের নিয়ে ছাত্রাবাসে যাই। সেখানে গিয়ে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর মাথায় পানি ঢালতে দেখি। পরে তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত কমিটি করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে’।

সর্বশেষ খবর