২ অক্টোবর, ২০২১ ২০:০০

বিদেশী চ্যানেলগুলো আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী প্রদর্শন করেছে: তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

বিদেশী চ্যানেলগুলো আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী প্রদর্শন করেছে: তথ্যমন্ত্রী

'বছরের পর বছর ধরে বিদেশী চ্যানেলগুলো দেশের আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী প্রদর্শন করে বিজ্ঞাপন সম্প্রচার করছিল। তাদের বহুবার তাগদা দেয়াও হয়ে ছিল। কিন্তু তারা কর্ণপাত করেনি। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশে বিদেশী চ্যানেলের যারা প্রতিনিধি ক্যাবল অপারেটরদের সাথে বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম পহেলা অক্টোবর থেকে এ আইন কার্যকর করবো। সে অনুযায়ী গতকাল থেকে আমরা মোবাইলকোর্ট পরিচালনা করছি।' 

শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রীর ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনায় এ সব কথা বলেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

বঙ্গবন্ধু পরিষদ আবুধাবি কেন্দ্রিয় কমিটির সভাপতি ইফতেখার হোসেন বাবুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আতাউর রহমান, সহ সভাপতি স্বজন কুমার তালুকদার, চট্টগ্রাম প্রবাসী কল্যাণ সমিতির সভাপতি এম এ ছালাম। এতে বক্তব্য রাখেন সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসী কমিউনিটি নেতা আবদুল মোতালেব, জামসেদুল আলম, শফিউল আলম, সেলিম আনছারি, জমির হোসেন জমির প্রমুখ।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের আকাশ সব চ্যানেলের জন্য উম্মুক্ত। কিন্তু বাংলাদেশের আইনানুযায়ী বিদেশী চ্যানেলগুলো বাংলাদেশে কোনো বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করতে পারে না। একই আইন ইউরোপ আমেরিকা, ভারত, পাকিস্তন শ্রীলঙ্কাসহ উপমহাদেশের অন্য দেশ গুলোতে আছে। এখন কেউ যদি উদ্দেশ্যমূলক জনগণকে বিক্ষুদ্ধ করার জন্য বিজ্ঞাপনমুক্ত আসা চ্যানেল বন্ধ রাখে তাহলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সরকার কোন চ্যানেল বন্ধ করেনি। বিজ্ঞাপনমুক্তভাবে যেহেতু তারা ফিড দিচ্ছে না। তাই চ্যানেলগুলোর যারা বাংলাদেশে অপারেটর তারাই সম্প্রচার বন্ধ রেখেছে।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর