শিরোনাম
১২ জুন, ২০২২ ১৮:০২

১০ বছর বয়সী তিন লাখ ৬০ হাজার শিশুকে সাঁতার শেখানোর উদ্যোগ

অনলাইন ডেস্ক

১০ বছর বয়সী তিন লাখ ৬০ হাজার শিশুকে সাঁতার শেখানোর উদ্যোগ

সংগৃহীত ছবি

দশ বছর বয়সী তিন লাখ ষাট হাজার শিশুকে সরকার সাঁতার শেখানোর উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানিয়েছেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা।

রবিবার ঢাকা হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে এক অনুষ্ঠানে তিনি এই কথা জানান।

শিশুদের সমন্বিত ইসিডি সেবা প্রদানের লক্ষ্যে ২৭১ কোটি ৮২ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘সমাজভিত্তিক সমন্বিত শিশু-যত্ন কেন্দ্রের মাধ্যমে শিশুদের প্রারম্ভিক বিকাশ ও সুরক্ষা এবং সাঁতার সুবিধা প্রদান’ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন তিনি। 

২০২২ থেকে ২০২৪ সাল মেয়াদে বাস্তবায়িত এ প্রকল্পের শতকরা ৮০ ভাগ অর্থায়ন (২১৭ কোটি ৬২ লাখ টাকা) করবে বাংলাদেশ সরকার ও ২০ ভাগ অর্থায়ন (৫৪ কোটি ২০ লাখ টাকা) করবে ব্লুমবার্গ পিলানথ্রোপিজ।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ শিশু একাডেমির তত্ত্বাবধানে প্রকল্পটি দেশের ১৬টি জেলায় ৪৫টি উপজেলায় বাস্তবায়িত হবে। এ প্রকল্পের আওতায় এক থেকে পাঁচ বছর বয়সী দুই লাখ শিশুর জন্য প্রকল্প এলাকায় আট হাজার সমাজভিত্তিক শিশু-যত্ন কেন্দ্র স্থাপন এবং এক হাজার ছয়শত স্থানে ছয় থেকে দশ বছর বয়সী তিন লাখ ষাট হাজার শিশুকে সাঁতার শেখানো হবে।

প্রকল্পের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেন, প্রকল্পটির মূল লক্ষ্য হচ্ছে শিশুর প্রারম্ভিক বিকাশ, শিক্ষা এবং যত্ন প্রদান নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে শিশুর সার্বিক বিকাশ, নিরাপত্তা, সুরক্ষা নিশ্চিত করা এবং মৃত্যুঝুঁকি কমিয়ে আনা।

বাংলাদেশ শিশু একাডেমির চেয়ারম্যান লাকী ইনামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার। আরও উপস্থিত ছিলেন ব্লুমবার্গ ফিলানথ্রপিজের পরিচালক কেলি লারসন ( Kelly Larson), ব্রাক আইডি’র নির্বাহী পরিচালক ড ইরাম মরিয়ম, বাংলাদেশ ইসিডি নেটওয়ার্কের সহসভাপতি মাহমুদা আক্তার ও সিআইপিআর’বি উপ নির্বাহী পরিচালক ড. আমিনুর রহমান।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর